পাকিস্তানের বিরোধী রাজনীতিকদের গোরু-ছাগলের মতো কেনা হচ্ছে:  ইমরান খান

রবিবার আস্থা ভোটে ভাগ্যনির্ধারণের আগে আবার জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান (Imran Khan)। শনিবার বিকেল সাড়ে ৫টা নাগাদ টিভিতে সম্প্রচারিত ভাষণে দেশের এমন সঙ্কটময় পরিস্থিতিতে যুবসমাজকে উদ্বুদ্ধ করার পাশাপাশি বিরোধীদের বিরুদ্ধে আবারও চক্রান্তের অভিযোগ তুললেন পাক প্রধানমন্ত্রী। তাঁর সরকারকে উপড়ে ফেলতে বিদেশি ষড়যন্ত্রকারীরা ছাগলের মতো রাজনীতিকদের কিনে নেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করলেন তিনি।

শনিবার নাগরিকদের সঙ্গে সরাসরি কথা বলার সিদ্ধান্ত নেন ইমরান। লাইভ সম্প্রচারেই (Live Telecast) তাঁদের ফোন কল নেবেন বলে জানান প্রধানমন্ত্রী। তার আগে নাগরিকদের উদ্দেশে কিছু কথা বলতে চেয়ে ইমরান বলেন, ‘পাকিস্তান এখন সঙ্কটময় পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে। এই যুদ্ধ দেশের ভবিষ্যতের যুদ্ধ। এখন আমাদের সামনে দু’টো রাস্তা রয়েছে। আমাদের স্থির করতে হবে।’

এর পর দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলতে গিয়ে ইমরান বলেন, ‘আমাদের সরকারের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র চলছে। এখন এটা প্রমাণিত যে, সরকার উপড়ে ফেলতে রাজনীতিকদের গোরু-ছাগলের মতো কেনা হচ্ছে। ইতিহাস কিছুই ভোলে না। পাকিস্তানের ইতিহাসও এই বিশ্বাসঘাতকদের কোনও দিন ভুলবে না।’

সম্প্রতি ইমরান অভিযোগ করেন, বিদেশি শক্তিই তাঁর সরকারকে গদিচ্যুত করতে চাইছে। ওই অভিযোগের তথ্যপ্রমাণ হিসেবে একটি চিঠির কথা উল্লেখ করেছেন ইমরান। শনিবার তিনি বলেন, ‘বিদেশি চক্রান্ত তো প্রমাণ হয়ে গিয়েছে। জাতীয় অ্যাসেম্বলি, এনএসসি এবং পার্লামেন্টের নিরাপত্তা কমিটির সামনে ওই চিঠি তুলে ধরেছি। প্রামাণ্য নথিতেই বলা রয়েছে, ইমরান খানকে সরালে আমেরিকার সঙ্গে সম্পর্ক ভাল হবে।’

এর পরেই যুবসমাজের উদ্দেশে ইমরান বলেন, ‘এই পরিস্থিতিতে চুপ থাকলে তা খারাপদের সমর্থনেই কথা বলা হবে। আমি চাই আপনারা সরব হন এবং এই চক্রান্তের বিরুদ্ধে কথা বলুন। আমার জন্য বলতে হবে না, নিজের ভবিষ্যতের জন্য বলুন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 + 15 =