নতুন ক্যাবিনেটের গুরুত্বপূর্ণ পদে রয়েছেন মহিলারা, পাকিস্তানে পুরুষতন্ত্রে বড় ধাক্কা

পরিবর্তনের হাওয়া পাকিস্তানের (Pakistan) রাজনৈতিক মহলে। ইমরানকে সরিয়ে ক্ষমতায় এসেছে শাহবাজ শরিফের (Shahbaz Sharif) সরকার। মঙ্গলবারই শপথ নিয়েছেন নতুন প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্তরা। আর তাতেও দেখা গিয়েছে পরিবর্তনের ছোঁয়া। ৩৭ সদস্যের নতুন ক্যাবিনেটের গুরুত্বপূর্ণ পাঁচটি পদে রয়েছেন মহিলারা। যা পাকিস্তানের প্রশাসনিক স্তরে এক বিরাট পরিবর্তন বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

উল্লেখ্য, নতুন ৩৭ সদস্যের ক্যাবিনেটে ৩১ জন মন্ত্রী, ৩ জন প্রতিমন্ত্রী ও ৩ জন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য উপদেষ্টা। বলে রাখা ভাল, নতুন মন্ত্রিসভায় কোনও বিদেশমন্ত্রী নেই। তা নিয়েও কৌতূহল সৃষ্টি হয়েছে। মনে করা হচ্ছে, পাক প্রধানমন্ত্রীই সামলাবেন ওই মন্ত্রক। এর ফলে ভারত-সহ অন্য প্রতিবেশী দেশ ও পাকিস্তানের মিত্র দেশগুলির সঙ্গে পাকিস্তানের ভবিষ্যৎ সম্পর্কের রূপরেখা তিনিই নির্ধারণ করতে চাইছেন বলেই ধারণা।

আগের পিটিআই সরকারে ছিল পুরুষদের প্রাধান্য। কিন্তু শাহবাজের সরকারে সেই ধরনের কোনও ‘ট্যাবু’ রাখা হয়নি। নতুন প্রশাসনে বিদেশ প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছেন ‘পাকিস্তান পিপলস পার্টি’র হিনা রাব্বানি খার (Hina Rabbani Khar)। পরিবেশ পরিবর্তন মন্ত্রী হয়েছেন শেরি রহমান। তিনি এর আগে আমেরিকায় পাক রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিযুক্ত ছিলেন। পাকিস্তান মুসলিম লিগ-এন দলের নেত্রী মারিয়াম ঔরঙ্গজেব পেয়েছেন তথ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব। এছাড়া শাজিয়া মারি ও আয়েশা গাউস পাশা যথাক্রমে পেয়েছেন ‘বেনজির ইনকাম সাপোর্ট প্রোগ্রাম’-মন্ত্রী এবং অর্থ প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব। স্বাভাবিকভাবেই এতজন মহিলার গুরুত্বপূ্র্ণ পদপ্রাপ্তিকে বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে দেখছে ওয়াকিবহাল মহল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × 5 =