উত্তরাখণ্ডে পাশ অভিন্ন দেওয়ানি বিধি বিল

অভিন্ন দেওয়ানি বিধি কার্যকর হচ্ছে উত্তরাখণ্ডে। রাজ্য বিধানসভায় বুধবার এই সংক্রান্ত বিলটি পাশ হয়ে গিয়েছে। এখন রাষ্ট্রপতির কাছে বিলটি অনুমোদনের জন্য পাঠানো হবে। উত্তরাখণ্ডের পুষ্কর সিংহ ধামী সরকার দেশে প্রথম অভিন্ন দেওয়ানি বিধি কার্যকর করতে চলেছে। এবার রাজ্যপালের সই পেলেই আইন হয়ে যাবে অভিন্ন দেওয়ানি বিধি। এক দেশ এক আইনের পথে আরও একধাপ এগোল ভারত, বলছে ওয়াকিবহাল মহল।

আগেই উত্তরাখণ্ডের মন্ত্রিসভার অনুমোদন পেয়েছিল অভিন্ন দেওয়ানি বিধি বিল। তার আগে অভিন্ন দেওয়ানি বিধি বিলের খসড়া পাঠানো হয়েছিল পাঁচ সদস্যের কমিটির কাছে। সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি রঞ্জনা প্রকাশ দেশাইয়ের নেতৃত্বে এই কমিটি বেশ কিছু সুপারিশ করে এই বিলে। সমস্ত সুপারিশ গ্রহণ করেই রবিবার এই বিলটিকে সবুজ সংকেত দিয়েছে উত্তরাখণ্ডের মন্ত্রিসভা। অভিন্ন দেওয়ানি বিধি বিল পাশ করানোর জন্য বিশেষ অধিবেশন শুরু হয় উত্তরাখণ্ডে।

মঙ্গলবার বিধানসভার কার্যাবলি শুরু হতেই অভিন্ন দেওয়ানি বিধি বিল পেশ করেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী পুস্কর সিং ধামি। সঙ্গে সঙ্গে বন্দে মাতরম ও জয় শ্রীরাম ধ্বনিতে ভরে ওঠে গোটা অধিবেশন কক্ষ। তবে বিল পেশের পরেই সাময়িকভাবে মুলতুবি হয়ে যায় অধিবেশন। বুধবার সকাল থেকে ফের পুরোদমে শুরু হয় অভিন্ন দেওয়ানি বিধি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা।

অধিবেশনে ধামি বলেন, ‘স্বাধীনতার পরে রাজ্যগুলো নিজেদের সুবিধা মতো সময়ে অভিন্ন দেওয়ানি বিধি কার্যকর করতে পারে, এমনটাই বলা হয়েছে সংবিধানে। অনেকেই এই বিলের বিরোধিতা করেছেন। কিন্তু সংবিধান মেনেই তৈরি হয়েছে বিলের খসড়া।’ বুধবার বিকেলেই পাশ হয়ে যায় বিলটি। উচ্ছ্বাসে মেতে ওঠেন বিধায়করা। তবে এই বিলের আওতায় রাখা হয়নি দলিত ও জনজাতি সম্প্রদায়ের নাগরিকদের।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *