সর্বভারতীয় স্তরে যোগাসন প্রতিযোগিতা প্রথম হয়ে মুখ উজ্জ্বল করল গোঘাটের সঞ্চিতা

স্কুল পর্যায়ের যোগাসন প্রতিযোগিতায় সর্বভারতীয় স্তরে প্রথম হয়ে আরামবাগ মহকুমার মুখ উজ্জ্বল করল ছোট্ট মেয়ে সঞ্চিতা মণ্ডল। স্কুল গেমস এবং স্পোর্টসের জন্য পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য পরিষদের পক্ষ থেকে ৬৭ তম স্কুল গেম যোগাসন প্রতিযোগিতায় ৭৮৫.৬ পয়েন্ট অর্জন করে প্রথম স্থান অধিকার করে সঞ্চিতা মণ্ডল। সে গোঘাটের প্রত্যন্ত গ্রাম শাওড়ার বেলেকুসমার মেয়ে। বুধবার বাড়ি ফিরতেই গ্রামের মানুষ ও তৃণমূল নেতৃত্ব তাকে ফুলের মালা ও চন্দন পরিয়ে সংবর্ধনা দেয়। খুশির হাওয়া দেখা যায় গোঘাটে।

জানা গেছে, রাজস্থানের জয়পুরে ২৯ টি রাজ্য নিয়ে শুরু হয় এই প্রতিযোগিতা। পরে ৬ টি রাজ্যে খেলা হয়, চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অর্জন করে সে। প্রতিযোগীতাটি হয় গত ৪ ফেব্রুয়ারি। বালি ব্যায়াম সমিতি থেকে যোগ ব্যায়ামের অনুশীলন করত সঞ্চিতা। খেলাধুলা ও পড়াশুনাকে সমান্তরালে রেখে তার এই সাফল্য। তার এই সাফল্যে আপ্লুত সকলে। ভারতসেরা যোগাশ্রেষ্ঠা বাড়ি ফিরে আসে বুধবার। তাকে বাড়ি নিয়ে যেতে প্রায় গোটা গ্রামবাসী উপস্থিত হয় আরামবাগ স্টেশনে। তাকে সেখানেই ফুলের মালা পরিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়। তারপর গ্রামেও সংবর্ধনা দেওয়া হয়। তৃণমূল নেতৃত্বও সেখানে গিয়ে শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি মহকুমার গর্ব সঞ্চিতাকে সংবর্ধনা দেয় ও পাশে থাকার বার্তা দেন।

এই বিষয় সঞ্চিতার মা রিঙ্কু মণ্ডল বলেন, ব্যায়ম সমিতিতে ছয় বছর প্রশিক্ষণ নেয়। তারপর সাফল্য পায়। সরকারি ভাবে যদি সাহায্য পাওয়া যায় তাহলে মেয়ে আরও ভালো ভাবে যোগাসন করতে পারবে। অপরদিকে গোঘাটের গর্ব সঞ্চিতা মণ্ডল জানান, রাজস্থানের জয়পুরে প্রতিযোগিতা হয়। যোগাসন প্রতিযোগিতায় প্রথম হই। অন্যদিকে গোঘাট এক নম্বর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি সঞ্চিত পাখিরা বলেন, সত্যি গর্বের বিষয়। একটা প্রত্যন্ত এলাকার মেয়ে সাফল্য পেয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *