অণ্ডালের বিদ্যালয়ে চুরি, আতঙ্ক

নিজস্ব প্রতিবেদন, অণ্ডাল: এবার পশ্চিম বর্ধমান জেলার অণ্ডাল থানা এলাকায় ট্র্যাফিক কলোনি সংলগ্ন অণ্ডাল উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে দুঃসাহসিক চুরির ঘটনায় আতঙ্ক এলাকায়। নগদ টাকা ও বেশ কিছু নথি চুরি হয়েছে।
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা সঞ্চিতা চক্রবর্তীর দাবি, দীর্ঘ ৩৫ বছর তিনি এখানে শিক্ষকতা করছেন এমন ঘটনা আগে কোনও দিনই ঘটেনি। যখন বিদ্যালয়ে সিসিটিভি ছিল না, তখনও এমন ঘটনা ঘটেনি। যেখানে এখন বিদ্যালয়ে সিসিটিভি লাগানো হয়েছে, তা সত্ত্বেও বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকার জানলার রড কেটে চোরেরা ভিতরে প্রবেশ করে বিদ্যালয়ে থাকা গুরুত্বপূর্ণ নথি থেকে চুরি করেছে নগদ টাকাও। বছর পাঁচেক আগে বিদ্যালয়ের নিরাপত্তারক্ষী অন্য জায়গায় কাজে চলে গিয়েছেন, তাই নিয়ম অনুযায়ী এই বিদ্যালয়ে আজও কোনও নিরাপত্তা রক্ষী নিয়োগ হয়নি।
সঞ্চিতা চক্রবর্তী জানান, বিদ্যালয়ে আনুমানিক ৫০ হাজার মতো টাকা ছিল, যা চুরি হয়েছে। এছাড়াও বিদ্যালয়ে শিক্ষকদের নিজস্ব লকারগুলিও ভেঙেছে চোরেরা। সেগুলিতে কার কী ছিল সেটা অন্য শিক্ষকরাই বলতে পারবেন। ঘটনায় এলাকায় ছড়িয়েছে আতঙ্ক, ঘটনাস্থলে আসে অণ্ডাল থানার পুলিশ। বিদ্যালয়ের মধ্যে সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে দুষ্কৃতীদের চিহ্নিত করার চেষ্টা করছে পুলিশ।
বিদ্যালয়ের পরিচালন কমিটির সভাপতি ও সম্পাদক শ্যামাপ্রসাদ ভট্টাচার্যর দাবি, এই ঘটনায় স্বাভাবিক ভাবেই আতঙ্ক ছড়িয়েছে। কিছুদিন আগেই এলাকায় এভাবে দু’টি জায়গায় চুরি হয়েছে, পুলিশ এখনও পর্যন্ত তার কোনও কিনারা করতে পারেনি। তবে তিনি আশাবাদী পুলিশ সঠিক উপায়ে তদন্ত করে নিশ্চয় অপরাধীদের শনাক্ত করে তাদের আইনগত ভাবে শাস্তি দেবে।
উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগেই রানিগঞ্জের একটি বেসরকারি বিদ্যালয়ে রাতের অন্ধকারে দুষ্কৃতীরা বিদ্যালয়ের ভিতর ঢুকে তাণ্ডব চালায় বলে অভিযোগ ওঠে। যদিও তখন বিদ্যালয়ে চুরি কিছুই হয়নি, তবে বিদ্যালয়ের দুষ্কৃতীরা আসবাবপত্র ভেঙেচুরে পালিয়ে যায় বলে অভিযোগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *