গাজায় সেনার সঙ্গে দেখা করে হামাসকে নিঃশেষ করার ডাক ইজরায়েলি প্রধানমন্ত্রীর

চারদিনের যুদ্ধবিরতি শেষ হওয়ার আগেই রবিবার ইজরায়েলের সেনার সঙ্গে দেখা করতে গাজায় গিয়েছিলেন সেদেশের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। গাজায় গিয়ে ইজরায়েলি সেনার উদ্দেশে নেতানিয়াহু সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, কেউ আটকাতে পারবে না। আমরা না জিতে থামব না। সেই সঙ্গে এটাও নিশ্চিত করতে হবে, গাজা যেন ইজরায়েলের বিপদের কারণ হয়ে উঠতে না পারে। হামাসকে নিঃশেষ করে ফেলতে হবে। যুদ্ধ শেষ হতে এখনও অনেক বাকি।

হামাসের সঙ্গে চারদিনের সংঘর্ষ বিরতি শেষ হচ্ছে সোমবার। তার আগের দিনই হঠাৎ যুদ্ধক্ষেত্রে গিয়ে সেনার সঙ্গে দেখা করলেন নেতানিয়াহু। কমান্ডারদের সঙ্গে আলাদা করে কথাও বলেন। গাজায় যুদ্ধ পরিস্থিতি সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীকে বিস্তারিত তথ্য দেন সেনা আধিকারিকরা। সেই ভিডিও পোস্ট করা হয় নেতানিয়াহুর এক্স হ্যান্ডেল থেকেই। ভিডিও থেকেই শোনা যায়, সেনার উদ্দেশে বিশেষ বার্তা দিচ্ছেন নেতানিয়াহু। তিনি বলেন, আমরা একেবারে শেষ পর্যন্ত লড়ে যাব, যতক্ষণ না জিতছি।

ভিডিওতে নেতানিয়াহুকে বলতে শোনা যায়, কেউ আমাদের থামাতে পারবে না। শক্তি, ক্ষমতা, ইচ্ছা, নিষ্ঠা-সবকিছুই রয়েছে আমাদের। যুদ্ধে সাফল্য পেতেই আমরা লড়াই চালিয়ে যাব। এই যুদ্ধে আমাদের তিনটে লক্ষ্য- হামাসকে শেষ করতে হবে, পণবন্দিদের ফেরাতে হবে। সেই সঙ্গে নিশ্চিত করতে হবে যেন গাজা থেকে ইজরায়েলের উপর আর হামলা করতে না পারে। হামাসের হাতে আটক পণবন্দিদের সকলকে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে বলেও জানান নেতানিয়াহু।
অন্যদিকে, সোমবারই শেষ হবে চারদিনের সংঘষর্ বিরতি। যদিও হামাস চাইছে এই সংঘর্ষ বিরতির মেয়াদ আরও বাড়ানো হোক। উল্লেখ্য, চারদিনে ৫০ জন পণবন্দিকে মুক্তি দেওয়ার কথা বলেছিল হামাস। ইতিমধ্যেই ৪২ জনকে মুক্তি দিয়েছে তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 × 4 =