বর্ষীয়ান যুগলের মৃতদেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য বরানগরে

ব্যারাকপুর : বর্ষীয়ান যুগলের মৃতদেহ উদ্ধারকে ঘিরে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ালো বরানগরে। শুক্রবার মধ্য রাতে বরানগর থানার ২৮ নম্বর ওয়ার্ডের শশীভূষণ নিয়োগী গার্ডেন লেনের একটি বহুতল আবাসনের চারতলার একটি ফ্ল্যাট থেকে দুই লিভ-ইন সঙ্গীর মৃতদেহ পুলিশ উদ্ধার করেছে। মৃতদের নাম দেবকৃষ্ণ বাসু ( ৫৭) এবং অর্চনা সিনহা ( ৫৫ )। শুক্রবার মধ্য রাতে নিয়োগী পাড়ার একটি আবাসনের একটি ফ্ল্যাট থেকে পুলিশ দুজনের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে।

স্থানীয়দের দাবি, ওই ফ্ল্যাট থেকে ওইদিন রাতে দুর্গন্ধ পেয়ে তারা পুলিশে খবর দেন। পুলিশ ও দমকল এসে দরজা ভেঙে খাটের পাশে মেঝেতে লুটিয়ে থাকা জোড়া মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায়। পুলিশ ও স্থানীয়দের অনুমান, করোনার সময় ব্যবসা মন্দার কারনে অনেক ধার-দেনায় জড়িয়ে পড়েছিলেন ব্যবসায়ী দেবকৃষ্ণ বাসু। আর্থিক সমস্যার জেরেই প্রেমিকাকে বিষ খাইয়ে ব্যবসায়ী নিজেও বিষ খেয়ে আত্মঘাতী হয়েছেন।

তবে মৃতদেহের পাশ থেকে পুলিশ একটি সুইসাইড নোট উদ্ধার করেছে। ধার-দেনার কারনে কিংবা ঘটনার পিছনে অন্য কোনও রহস্য আছে কিনা, তা খতিয়ে দেখছে বরানগর থানার পুলিশ। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রায় ২০ বছর ধরে লিভ-ইন ছিলেন দেবকৃষ্ণ বাসু ও অর্চনা সিনহা। দু বছর আগে ১২ লক্ষ টাকা দিয়ে বরানগর শশীভূষণ নিয়োগী গার্ডেন লেনে একটি ফ্ল্যাট কেনেন। ওই মহিলার স্বামী কলকাতা পুলিশ কর্মী ছিলেন। ওনার মৃত্যুর পর দেবকৃষ্ণ বাবুর সঙ্গে প্রণয়ের সম্পর্কে লিপ্ত হয়েছিলেন অর্চনা দেবী। তবে তদন্তকারীদের দাবি, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলেই মৃত্যুর প্রকৃত কারন জানা যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

sixteen + fourteen =