অবৈধ নির্মাণ ভেঙে রাস্তা সম্প্রসারণ নিয়ে তৃণমূলের মধ্যেই তরজার দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাঁকুড়া: বিষ্ণুপুর শহরের রবীন্দ্র স্ট্যাচু সংলগ্ন অবৈধ নির্মাণ ভেঙে রাস্তা সম্প্রসারণকে ঘিরে তৃণমূলের মধ্যে তরজা শুরু হওয়ার দাবি। অভিযোগ, শহরের অতি গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা যেখানে নিয়মিত যানজটের ঘটনা ঘটছে, সেই জায়গায় রাস্তা সম্প্রসারণ অবৈধ নির্মান ভাঙা নিয়ে কোনও হেলদোল নেই পুরসভার। বিষ্ণুপুরের রবীন্দ্র স্ট্যাচু সংলগ্ন রাস্তার কী এমন প্রয়োজন পড়ল, সেখানেই ভাঙাভাঙির তৎপরতা শুরু হল? তৃণমূল পরিচালিত পুরসভার চেয়ারম্যানের দিকে এই প্রশ্ন তুলে সরব হলেন বিষ্ণুপুর শহর তৃণমূল যুব সভাপতি। এই সিদ্ধান্ত পুরসভার নয় প্রশাসনের। কে কী বলল তাতে কিছু যায় আসে না পালটা প্রতিক্রিয়া বিষ্ণুপুর পুরসভার চেয়ারম্যানের। তৃণমূলের মধ্যে এই তর্কের মাঝেই একই দাবি বিজেপিরও।
সম্প্রতি বিষ্ণুপুর শহরের রবীন্দ্র স্ট্যাচু মোড় সংলগ্ন চৌরাস্তায় রাস্তা সম্প্রসারণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বিষ্ণুপুর পুরসভা, মহকুমা ও পুলিশ প্রশাসনের তরফে। ওই এলাকায় অবৈধ নির্মাণ করে বসে থাকা ব্যবসায়ীদের দোকানগুলি ভেঙে ফেলার কথাও বলা হয়েছে। সেই নির্দেশে দখল করে রাখা অবৈধ নির্মাণগুলি ফেলার কাজ শুরু করে এলাকার ব্যবসায়ীরা। স্থানীয় এক ব্যবসায়ীর দাবি, অবৈধ নির্মাণ ভেঙে রাস্তা চওড়া হোক, তাতে কোনও অসুবিধা নেই। কিন্তু বিষ্ণুপুর শহরের যেখানে নিয়মিত যানজট হয়, সে রাস্তাগুলো সম্প্রসারণের আগে প্রয়োজন ছিল। একই মত এই এলাকার ব্যবসায়ীদের।
রবীন্দ্র স্ট্যাচু সংলগ্ন রাস্তা সম্প্রসারণের জন্য এত তড়িঘড়ি অবৈধ নির্মাণ ভাঙার প্রয়োজন হল কেন? এই প্রশ্ন তুলেছেন এলাকার ব্যবসায়ীরাও। বিষ্ণুপুর শহর যুব তৃণমূল সভাপতিও সরব হয়েছেন রবীন্দ্র স্ট্যাচু সংলগ্ন রাস্তা সম্প্রসারণ নিয়ে। তাঁর দাবি, শহরের রাস্তা চওড়া হোক অবৈধ নির্মাণ ভাঙা হোক, তাতে কোনও অসুবিধা নেই। কিন্তু শহরের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা, যেখানে মানুষকে প্রতিদিন হয়রান হতে হচ্ছে যানজট হচ্ছে, অ্যাম্বুল্যান্স আটকে যাচ্ছে ,সেই গুরুত্বপূর্ণ সংকীর্ণ রাস্তাগুলি সম্প্রসারণের কাজ না করে রবীন্দ্র স্ট্যাচুর সংলগ্ন রাস্তা সম্প্রসারণ আগে কেন?
তৃণমূল পরিচালিত পুরসভার চেয়ারম্যানের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলে তৃণমূল যুব সভাপতির দাবি, পুরসভার চেয়ারম্যান বিশেষ কোনও কারণে ব্যক্তিগত স্বার্থে অতি তৎপরতার সহিত রবীন্দ্র স্ট্যাচু সংলগ্ন রাস্তা সম্প্রসারণের জন্য উদ্যোগী হয়েছেন। তৃণমূল পরিচালিত বিষ্ণুপুর পুরসভার চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে তৃণমূলের যুব সভাপতির এহেন মন্তব্যে শোরগোল পড়েছে বিষ্ণুপুর শহরে। বিষ্ণুপুর পুরসভার বিজেপি কাউন্সিলরও একই দাবি করেছেন। যেটা আগে সম্প্রসারণের দরকার, সেটা না করে পরিকল্পনা ছাড়া রবীন্দ্র স্ট্যাচু সংলগ্ন রাস্তা সম্প্রসারণের কাজ শুরু হয়ে গেল। হঠাৎ শহরের রবীন্দ্র স্ট্যাচু সংলগ্ন রাস্তা সম্প্রসারণের আগে প্রয়োজন পড়ল কী কারণে, এই প্রশ্ন তুলেছে বিজেপিও।
যদিও তৃণমূল পরিচালিত বিষ্ণুপুর পুরসভার চেয়ারম্যানের দাবি, ‘রাস্তা সম্প্রসারণের কাজ হচ্ছে পুলিশ ও প্রশাসনিক সিদ্ধান্তে পুরসভার একার সিদ্ধান্তে নয়। যে অবৈধ নির্মাণ ভাঙা হচ্ছে, তাদের পুনর্বাসনও দেওয়া হবে সরকারি ভাবে। এখানে কে কি বলল বলতে পারব না প্রশাসনিক সিদ্ধান্তকে মান্যতা দিয়ে বিষ্ণুপুরের মানুষের সুবিধার্থে কাজ হচ্ছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *