মানসিক অবসাদে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী স্কুল ছাত্রী

ব্যারাকপুর :- মানসিক অবসাদে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী এক স্কুল ছাত্রী। নৈহাটি থানার মামুদপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের কুলিয়াগড় সরকার পাড়ার ঘটনা। মৃত ছাত্রীর নাম অনামিকা সরকার (১৮)।রবিবার সন্ধেয় নিজের ঘর থেকে নৈহাটি থানার পুলিশ ওই স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে। জানা গেছে, নৈহাটি প্রফুল্ল সেন গার্লস হাই স্কুলের একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী ছিল অনামিকা। মৃতার মা আন্না সরকার দমদম নাগেরবাজারে রান্নার কাজ করেন। মৃতার মা জানান, প্রায় দু-বছর আগে শিবদাসপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের বাদুরিয়ায় নিজের পছন্দের ছেলেকে অনামিকা বিয়ে করেছিল।

ওখানে ননদাইয়ের উৎপাতের জন্য কয়েক মাস আগে মেয়ে বাড়িতে চলে আসে। পরবর্তীতে মেয়ে শ্বশুরবাড়িতে যেতে একেবারেই নারাজ ছিল। আত্মীয়-পরিজনদের মেয়ে বলেছিল ভালো একটা পাত্র খুঁজতে। আন্না দেবীর দাবি, ওইদিন বেলা আড়াইটের সময় শেষবার মেয়ের সঙ্গে কথা হয়েছিল। বিকেল ৪-৪৫ মিনিট নাগাদ ফোন করলে দেখা যায় মেয়ের ফোন সুইচ অফ। ওইদিন সন্ধে ৬-৩০ মিনিট নাগাদ কাজ সেরে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিতেই পাশের বাড়ির একজন ফোন করে মর্মান্তিক ঘটনার কথা জানায়। তবে কি কারনে অনামিকা আত্মহননের পথ বেছে নিল, তা নিয়ে ধোঁয়াশায় মৃতার পরিবার। যদিও স্থানীয়দের একাংশের দাবি,মানসিক অবসাদের জেরেই মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nineteen − three =