প্রেমে প্রত্যাখ্যাত হয়ে প্রেমিকাকে সোশ্যাল মিডিয়ায় আত্মহত্যার আগাম ইঙ্গিত দিয়ে আত্মঘাতী যুবক

প্রেমে প্রত্যাখ্যাত হয়ে প্রেমিকাকে সোশ্যাল মিডিয়ায় আত্মহত্যার আগাম ইঙ্গিত দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা যুবকের। ঘটনাটি ঘটেছে, হাবড়া থানার পৃথিবা কুলতলা এলাকায়।পুলিশ জানিয়েছে মৃতের নাম বিষ্ণু দাস(২১)। মৃতের পরিবার জানিয়েছে পেশায় রাজমিস্ত্রি বিষ্ণুর সঙ্গে প্রায় পাঁচ বছর ধরে দেগঙ্গার এক তরুণীর সঙ্গে ভালোবাসার সম্পর্ক ছিল। বছর দুই আগে তারা চাকলা মন্দিরে নিজেরা বিয়ে করে। তবে মেয়ের বাড়ি থেকে এই সম্পর্ক মেনে নিতে চায়নি তাই মেয়েকে বিষ্ণুর বাড়িতে আসতে দেয়নি তারা। তবে বিষ্ণু তরুণীর সঙ্গে লুকিয়ে মাঝেমধ্যে দেখা করতেন এমনকী প্রায় লক্ষাধিক টাকার অলংকার তৈরি করে দিয়েছিল তরুণীকে। ইদানিং তরুনীকে তার বাপের বাড়ির তরফে যুবকের সঙ্গে দেখা করতে না দেওয়ার জন্য আটকে রাখা হয়। এই নিয়ে কয়েকদিন ধরে মানসিক অবসাদে ভুগছিল বছর একুশের এই যুবক। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, বাবা-মা যখন কাজে গিয়েছিল সেই ফাঁকে শুক্রবার  দুপুরে  নিজের ঘরের পাখার সঙ্গে যুবক গলায় মায়ের শাড়ি দিয়ে ফাঁস দেয়। বাবা মানিক দাস এদিন বাড়ি ফিরে ছেলেকে ডাকাডাকি করাতে কোনো সাড়া না মেলায় দরজা খুলে ছেলেকে ঝুলতে দেখে স্থানীয়দের সহযোগিতায় তরিঘড়ি করে হাবড়া হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে। মৃত যুবকের পরিবার  জানিয়েছেন বিষ্ণু দাস দু’দিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তার প্রেমিকাকে আত্মহত্যার আগাম ইঙ্গিত দিয়েছিল,সব জানা সত্ত্বেও মেয়েটি কেন যুবকের পরিবারকে জানায়নি উঠছে একাধিক প্রশ্ন।অভিযুক্তদের কঠিন শাস্তির দাবি তুলে শুক্রবারই মৃত যুবকের পরিবারের পক্ষ থেকে হাবড়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তদন্তে নেমেছে হাবড়া থানার পুলিশ। শনিবার মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বারাসাত জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনায় শোকের ছায়া পরিবারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × 1 =