অযোধ্যায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, সূচনা করলেন বন্দে ও অমৃত ভারতের

২২ জানুয়ারি অযোধ্যা রামমন্দিরের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তার আগে ঢেলে সাজানো হচ্ছে অযোধ্যা শহরকে। চাওড়া রাস্তাঘাট তৈরি হয়েছে। অযোধ্যাকে দেশের বিভিন্ন রাজ্যের সঙ্গে জুড়তে একাধিক নতুন ট্রেনও চালানো হবে। বিমানবন্দরের নতুন টার্মিনাল ভবন তৈরি করা হয়েছে।
আজ, শনিবার অযোধ্যায় গিয়ে  অযোধ্যা থেকে বিপরীতমুখী গন্তব্যে বন্দে ভারত ও অমৃত ভারত যাত্রার সূচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী। নবনির্মিত অযোধ্যাধাম স্টেশনের উদ্বোধন করলেন তিনি। অযোধ্যা স্টেশন থেকে বিপরীতমুখী গন্তব্যের দিকে যাত্রা শুরু করল নীল-সাদা রঙের বন্দে ভারত এবং গেরুয়া-ছাই রঙা অমৃত ভারত। মোট ছ’টি বন্দে ভারত এবং দু’টি অমৃত ভারত ট্রেনেরও সূচনা করেন মোদী। দু’টি অমৃত ভারত ট্রেনের মধ্যে একটি পেয়েছে বাংলা। রাজ্যের মালদহ টাউন স্টেশন থেকে ট্রেনটি ইতিমধ্যেই তার গন্তব্য বেঙ্গালুরুর উদ্দেশে রওনা দিয়েছে। নবনির্মিত অযোধ্যাধাম স্টেশনের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। তাঁকে স্টেশনের সব অংশ ঘুরে ঘুরে দেখান রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব। সঙ্গে ছিলেন আদিত্যনাথও।
প্রধানমন্ত্রী এদিন  বিমানবন্দরের ও উদ্বোধন করবেন। আগে এখানকার বিমানবন্দরের নাম ছিল ‘মর্যাদা পুরুষোত্তম শ্রী রাম অযোধ্যা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর’।  তার পরিকাঠামো ও পরিষেবাও বাড়ানো হয়েছে। সূত্রের খবর, বিমানবন্দরের নতুন নাম হতে চলেছে ‘মহর্ষি বাল্মীকি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর অযোধ্যাধাম’।
এদিন মোদি অযোধ্যা পৌঁছতেই তাঁকে স্বাগত জানান উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। সঙ্গে ছিলেন রাজ্যপাল আনন্দীবেন পটেলও। মন্ত্রোচ্চারণ এবং পুষ্পবৃষ্টির মাধ্যমে তাঁকে স্বাগত জানানো হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *