দেশের রাজনীতিতে প্রধানমন্ত্রীর দাবিদার একমাত্র জননেত্রীই, দাবি সাংসদ অর্জুন সিংয়ের

তিনি লড়াকু নেত্রী। দীর্ঘ লড়াইয়ের পর ৩৪ বছরের বাম শাসনকে উৎখাত করে বাংলার মসনদে বসা এই মানুষটার জন্মদিন। সরকারি নথি অনুযায়ী, ১৯৫৫ সালের ৫ জানুয়ারি তাঁর জন্ম। যদিও রাজনৈতিক জীবনের অধিকাংশ সময় তাঁর কেটেছে সংগ্রামের মধ্য দিয়েই। রাজ্যের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী তথা দেশের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্মদিন উপলক্ষে শুক্রবার নৈহাটির বড়মা কাছে পুজো দিলেন ব্যারাকপুর কেন্দ্রের জনপ্রিয় সাংসদ অর্জুন সিং। এদিন তিনি শক্তি মায়ের কাছে জননেত্রীর দীর্ঘায়ু ও সুস্থতা কামনা করলেন।

পুজো দিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে সাংসদ বলেন, দেশের মানুষ তাঁর দিকে তাকিয়ে আছেন। মায়ের কাছে তাঁর প্রার্থনা, দেশের রাজনীতিতে নেত্রী যাতে সর্বোচ্চ স্থানে পৌঁছতে পারেন, মায়ের কাছে সেই প্রার্থনাই করলাম। সাংসদের দাবি, দেশের রাজনীতিতে প্রধানমন্ত্রীর একমাত্র দাবিদার জননেত্রীই। সাংসদের কথায়, দল খুব ভালো জায়গায় আছে। দল নিয়ে চিন্তা করার কিছুই নেই। লোকসভা নির্বাচনেও দল ভালো ফল করবে। এদিন বড়মা মন্দিরে হাজির ছিলেন হালিশহর পুরসভার উপ-পুরপ্রধান রাজা দত্ত, তৃণমূল নেতা রানা দাশগুপ্ত, তৃণমূল যুব নেতা দীপঙ্কর ঘোষ, সোমা দাস-সহ দুর্দিনের বহু কর্মীরা। বড়মার মন্দিরে এসে হালিশহরের প্রাক্তন উপ-পুরপ্রধান রাজা দত্ত বলেন, আগামীদিনে কঠিন যুদ্ধ সামনে আসছে। মায়ের কাছে পুজো দিয়ে সাংসদ দলনেত্রীর সুস্থতা কামনা করলেন। দলে কোণঠাসা হয়ে পরা কর্মীদের নিয়ে রাজার মন্তব্য, বহু পুরানো কর্মী যারা দলের পেছনের সারিতে চলে গিয়েছেন। সাংসদ তথা জননেতাকে দেখে তারাও ময়দানে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন। দলের হয়ে তারা কাজও শুরু করে দিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *