আসানসোল সংশোধনাগারে বিচারাধীন বন্দিদের জন্য গ্রন্থাগার

নিজস্ব প্রতিবেদন, আসানসোল: আসানসোল-দুর্গাপুর পুলিশ কমিশনারেটের অন্যতম উদ্যোগ ‘ফিরে যাওয়া’ প্রকল্পে একটি নতুন গ্রন্থাগার চালু হল। আসানসোলের বিশেষ সংশোধনাগারে এর উদ্বোধন করা হয়। কর্তৃপক্ষের দাবি, জেলে বিচারাধীন বন্দিদের পুনর্বাসন ও শিক্ষার দিক থেকে এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ। এই উদ্যোগটি সাজা ভোগ করা ব্যক্তিদের শিক্ষাগত এবং উন্নয়নমূলক সুযোগ প্রদানের বৃহত্তর প্রচেষ্টার একটি অংশ হিসেবে কাজে লাগবে। আসানসোল জেলে চালু হওয়া নতুন এই লাইব্রেরিতে ৪০০টিরও বেশি বইয়ের একটি সংগ্রহ রয়েছে। সাহিত্য, বিজ্ঞান, ইতিহাস, সহায়তা, দক্ষতা বিকাশ সহ বিস্তৃত ধারাকে অন্তর্ভুক্ত করা এই উদ্যোগের লক্ষ্য বন্দিদের মধ্যে শেখার সংßৃñতি এবং ব্যক্তিগত বৃদ্ধির বিকাশ ঘটানো।
এই লাইব্রেরিতে থাকা বইয়ে শিক্ষার অগ্রগতি, শিক্ষাগত উপকরণ বন্দিদেরকে তাদের পড়াশোনা চালিয়ে যেতে বা আগ্রহের নতুন ক্ষেত্রগুলি অন্বেষণে সহায়তা করবে। যা বন্দিদের মানসিক পুনর্বাসনে সহায়তা করবে। বিভিন্ন বৃত্তিমূলক বই রয়েছে। যা মুক্তির পরে দরকারি হতে পারে এমন নতুন দক্ষতা বিকাশে বন্দিদের সহায়তা করবে। যাতে তারা বাইরের বিশ্বের সঙ্গে সংযুক্ত থাকবে ও সামাজিক উন্নয়ন সম্পর্কে তাদের জ্ঞান ও তা বোঝার ক্ষেত্রে উন্নতি করবে।
এই প্রসঙ্গে ডিসিপি (সেন্ট্রাল) জানান, ভবিষ্যতে আসানসোল সংশোধনাগারে আরও বই যুক্ত করে লাইব্রেরি প্রসারিত করার পরিকল্পনা করা হয়েছে। এই লাইব্রেরির প্রতিষ্ঠা বন্দিদের পুনর্বাসন এবং সামাজিক পুনর্মিলনের দিকে সংশোধনমূলক পরিষেবাগুলির প্রচেষ্টায় একটি উল্লেখযোগ্য দিক চিহ্নিত করবে। এই উপলক্ষে হওয়া এক অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আসানসোল-দুর্গাপুর পুলিশের ডিসিপি (সেন্ট্রাল) কুলদীপ সোনেয়াল, এসিপি (সেন্ট্রাল) দেবরাজ দাস, জেল সুপার, আসানসোল দক্ষিণ থানার ইন্সপেক্টর ইনচার্জ কৌশিক কুণ্ডু সহ অন্যান্যরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *