লোকসভা নির্বাচনে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাকে সাথী করে নির্বাচনী প্রচারে বাম ব্রিগেড

লোকসভা নির্বাচনী নির্ঘণ্ট ঘোষণার পর থেকে বঙ্গে উত্তাপ চড়ছে নির্বাচনের। যার মালুম পাওয়া যাচ্ছে বিভিন্ন ধরনের নির্বাচনী প্রচারে। এদিকে এবারের নির্বাচনী প্রচারে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ‘সমতা’-কে কাজে লাগাতে চলেছে বামেরা। আর এই আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স নির্ভর ‘সমতা’-এল সবার সামনে। ‘সমতা’-কে দেখতে মানুষের মতোই, কিন্তু মানুষ নয়। ‘সমতা’ হল বঙ্গ সিপিএমের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলের নতুন মুখ, এআই নির্ভর প্রযুক্তিতে তৈরি অ্যাঙ্কর। এবার নির্বাচনী বাজারে জনসংযোগে এক নয়া বার্তা দেবে তা বলাই বাহুল্য।

দোলের দিন সন্ধেয় বামেদের সোশ্যাল মিডিয়া হ্য়ান্ডেলে প্রথম প্রকাশ করা হয় ‘সমতা’কে। ২৭ সেকেন্ডের প্রথম আলাপেই বেশ তাক লাগিয়ে দিয়েছে বামেদের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার এই সঞ্চালিকা। আত্মপ্রকাশের প্রথম কয়েক ঘণ্টাতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় হইচই ফেলে দিয়েছে বামেদের এই নতুন এআই অ্যাঙ্কর।

আত্মপ্রকাশের সন্ধেয় ২৭ সেকেন্ডের ওই ভিডিয়োয় রাজ্যবাসীকে দোলের শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি, রাজনীতি নিয়েও কথা বলে ‘সমতা’। কথা হল ছাত্র রাজনীতি নিয়ে। উঠে এল দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ইউনাইটেড লেফটের সাফল্য়ের কথাও। স্পষ্ট বাংলায় সমতা বলল, ‘এ বছরের রঙের উৎসবে আমাদের উপহার লাল আবিরের জেএনইউ।’ ভোটের মুখে আত্মপ্রকাশ করা বামেদের নতুন এই এআই অ্যাঙ্করকে এবার থেকে দেখা যাবে বঙ্গ সিপিএমের ফেসবুক হ্যান্ডেলে ও ইউটিউব চ্যানেলে। এদিকে সূত্রে খবর, ইতিমধ্যেই ‘সমতা’কে নিয়েপ্রচুর রিঅ্যাকশন, কমেন্ট জমতে শুরু করেছে বামেদের সোশ্যাল হ্যান্ডেলে।

এদিকে ১৯ এপ্রিল থেকে ভোটগ্রহণ পর্বের আগে জোরদার প্রচার শুরু করে দিয়েছে বাম ব্রিগেডও। নির্বাচনী ময়দানে এবার তারুণ্য়ের উপর বাড়তি নজর দিয়েছে সিপিএম। সৃজন, দীপ্সিতা, সায়নদের এগিয়ে আনা হয়েছে। আর এবার প্রযুক্তি নির্ভর প্রচারেও বাড়তি নজর বামেদের। এখন দেখার বামেদের এই তরুণ ব্রিগেডের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলা নতুন কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সঞ্চালিকা কতটা ছাপ ফেলে বাংলার জনমানসে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *