হরিয়ানায় আইএনএলডি নেতা খুনে বাড়ছে রহস্য

হরিয়ানায় আইএনএলডি প্রধান নাফে সিং রাঠি খুনের ঘটনায় রহস্য বাড়ছে আরও। রবিবার অজ্ঞাতপরিচয় দুষ্কৃতীদের হাতে গাড়ির মধ্যেই খুন হন তিনি। জানা গিয়েছে, রাঠির প্রাণনাশের আশঙ্কা ছিল ৬ মাস আগে থেকেই। এ বিষয় পুলিশের উচ্চপদস্থ কর্তা এবং হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খাট্টারকেও জানানো হয়েছিল। চাওয়া হয়েছিল বাড়তি নিরাপত্তা। এমনই বিস্ফোরক দাবি তুলেন দলের সাধারণ সম্পাদক অভয় চৌটালা সরাসরি খাট্টারকেই দায়ী করেছেন।

রবিবার রাতে বাহাদুরগড়ের কাছে ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল লোক দলের রাজ্য প্রধান নাফে সিং রাঠির এসইউভি লক্ষ্য করে গুলি চালায় অজ্ঞাতপরিচয় দুষ্কৃতীরা। তাতেই মৃত্যু হয় রাঠি ও দলের এক কর্মীর। শুটআউটের পর নেতাকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে ডাক্তাররা জানান, রাঠির সারা শরীরে একাধিক গুলি লেগেছে, প্রচুর ক্ষত। বহু চেষ্টা করেও বাঁচানো যায়নি তাঁকে। ওই ঘটনায় রাঠির বেশ কয়েকজন নিরাপত্তারক্ষীও গুরুতর জখম হয়েছেন। হাসপাতালে তাঁদের চিকিৎসা চলছে। কে বা কারা এভাবে হামলা চালাল, তা এখনও স্পষ্ট নয়।

কুখ্যাত লরেন্স বিষ্ণোই গ্যাংয়ের সঙ্গে আইএনএলডি রাজ্য প্রধানের যোগাযোগের একটা গুঞ্জন ওঠায় তা গোড়াতেই উড়িয়ে দিয়েছেন অভয় চৌটালা। তাঁর পালটা দবি, হরিয়ানা সরকার নিজেদের দায় এড়াতে বিষ্ণোই গ্যাংয়ের প্রসঙ্গ তুলছে। মনে করা হচ্ছে লোকসভা নির্বাচনের আগে রাঠির হত্যায় নতুন করে উত্তপ্ত হতে চলেছে হরিয়ানা।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 × one =