প্রতিপক্ষকে মাঠে ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে জবাব: দিলীপ ঘোষ

নিজস্ব প্রতিবেদন, বর্ধমান: শনিবার প্রচারে বেরিয়ে মাঠে ক্রিকেটে চার-ছক্কা হাঁকিয়ে প্রতিপক্ষ কীর্তি আজাদের নাম না করে কটাক্ষ করে দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘বিপরীতে রিটায়ার্ড লোকেরা আছে, আমি রিটায়ার্ড নই। আমি এখনও ভালোই খেলি, যে মাঠে যাই সেই মাঠেই খেলি। প্রতিপক্ষকে মাঠে ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে জবাব দেব, ওঁরা তালই খুঁজে পাবেন না কখন পায়ের তলা থেকে মাটি সরে যাবে।’
বর্ধমানের লোকো চারতলা কলোনিতে ব্লিচ মাঠে প্রাতর্ভ্রমণ করে নিজের ভোট প্রচার শুরু করলেন বর্ধমান দুর্গাপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী দিলীপ ঘোষ। শনিবার সকাল সকাল মাঠের খুদে ক্রিকেটারদের সঙ্গে একপ্রস্থ ক্রিকেট খেললেন। মারলেন চার-ছক্কা। তার সঙ্গে জনসংযোগ সারলেন। এরপর পাশে একটি পার্কে গিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন। রেলের পার্ক কিন্তু অপরিষ্কার দেখেই তাঁর ক্ষোভ। রেল কলোনির আবাসিকদের তিনি জিজ্ঞেস করেন পার্ক এত অপরিষ্কার কেন। কিন্তু তাঁরা সদুত্তর দিতে পারে না। এরপর তিনি জানান যে, এই পার্ক রক্ষণাবেক্ষণে যিনি দায়িত্বে রয়েছেন তাঁকে জানিয়ে দেবেন ইমিডিয়েট পরিষ্কার করার ব্যবস্থা যদি না করেন, তা হলে তাঁর চাকরি খেয়ে নিতে পারেন তিনি। এরপরেই তিনি হাঁটতে হাঁটতে রাস্তার মোড়ে চা-চক্রে যোগ দেন।
সঙ্গে ছিলেন জেলা সভাপতি অভিজিৎ তা, বিজেপি নেতা সুনীল গুপ্ত, যুবমোর্চার সাধারণ সম্পাদক সুধিরঞ্জন সাউ সহ অন্যান্য বিজেপি নেতৃত্ব। এদিন পদ্ম ফুল ও দিলীপ দা লেখা চায়ের কাপ নিয়ে চা-চক্র সারেন দিলীপ ঘোষ। তিনি চায়ের কাপে চুমুক দিতে দিতে স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে জনসংযোগ সারেন। এদিন বিজেপি নেতা রুদ্রনীল ঘোষের ক্ষোভের বিষয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে দিলীপ বাবু বলেন, ‘সবাই পার্টির নেতা, সবাই পার্টির কাজ করবেন। সবার ইচ্ছে থাকে, সব ইচ্ছে পূরণ হয় না। সবাই চাইছেন ভোটে দাঁড়াতে, তা সম্ভব নয়। পার্টির তাঁদের অন্য কোনও কাজ দেবে, তাঁরা তা করবেন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *