ধর্ষণের বদলা নিতে গণধর্ষণ, ভয়াবহ ঘটনা মধ্যপ্রদেশে

ধর্ষণের বদলা নিতে গণধর্ষণ! এমনই ভয়াবহ অভিযোগ উঠেছে মধ্য প্রদেশের মোরেনা জেলায়।
জানা গিয়েছে, এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছিল। এক গৃহবধূর অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এবার ধর্ষণে অভিযুক্ত ব্যক্তির অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠল তিন ব্যক্তির বিরুদ্ধে। যে মহিলা প্রথমে ধর্ষণের অভিযোগ এনেছিলেন, তাঁর আত্মীয়রাই ধর্ষণে অভিযুক্তের স্ত্রীকে গণধর্ষণ করেছেন বলে অভিযোগ। এমনকী গণধর্ষণের পর নির্যাতিতার গায়ে আগুন লাগিয়ে দেওয়ারও অভিযোগ উঠেছে। এর জেরে গুরুতর জখম অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই মহিলা।
মধ্য প্রদেশ পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, অম্বা শহর থেকে মাত্র তিন কিলোমিটার দূরে একটি গ্রামে ঘটেছে এই গণধর্ষণের ঘটনা। জানা গিয়েছে, ধর্ষণের মামলা তুলে নেওয়ার জন্য অভিযোগকারী মহিলাকে অনুরোধ করতে তাঁর বাড়ি গিয়েছিলেন ধৃত ব্যক্তির স্ত্রী। সে সময়ই ওই মহিলাকে তিন জন মিলে গণধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। সেখান থেকে পালানোর চেষ্টা করায় গায়ে আগুন লাগিয়ে দেয় বলে অভিযোগ।এর জেরে ওই মহিলার দেহের ৮০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বর্তমানে তিনি গোয়ালিয়রের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ঘটনা নিয়ে মহিলার স্বামী পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছেন। এমনকি এই ঘটনার একটি ভিডিয়োও ছড়িয়েছে বলে জানা গিয়েছে। যদিও সেই ভিডিয়োর সত্যতা যাচাই করেনি ‘একদিন’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × two =