ভাতার স্টেশনে যানবাহন গেলে পার্কিং চার্জ চাওয়ার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদন, ভাতার: ভাতার রেলস্টেশন চত্বরে যে কোনও যানবাহন ঢুকলেই দিতে হবে পার্কিং! এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। বুধবার তিনটের সময় বিক্ষোভ দেখালেন টোটোচালকরা।
জানা গিয়েছে, এতদিন যাবত ভাতার রেলস্টেশন চত্বরে পার্কিংয়ে যে কোনও যানবাহন রাখলে তাতে পয়সা গুনতে হত জনসাধারণকে। কিন্তু হঠাৎ করে বুধবার ভাতার রেলস্টেশন এলাকায় বিভিন্ন জায়গায় লাগানো হয় ব্যানার। সেখানে সাধারণ মানুষকে জানানো হয়, রেলস্টেশন চত্বরে যে কোনও যানবাহন আনলেই তাঁকে দিতে হবে পার্কিং বাবদ টাকা। এমনকী, মাইকিংও করা হয় এবিষয়ে।
এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই ভাতার এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয় মানুষজন ও টোটোচালকরা ব্যাপক বিক্ষোভ দেখান ভাতার রেলস্টেশন চত্বরে। খবর যায় রেল দপ্তরে। বলগোনার আরপিএফ অফিসার সুনীল কুমার সিং খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন।
তিনি বলেন, ‘রেল দপ্তর একটি অর্ডার দিয়েছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত তা সমীক্ষা হয়নি। তবে ভাতার রেলস্টেশন চত্বরে পার্কিং করলেই পয়সা দিতে হবে এ বিষয়ে রেল দপ্তর কিছুই জানে না। কে বা কারা মাইকিং করেছেন সে বিষয়ে আমরা খোঁজখবর নিচ্ছি। তবে আমরা আসার পর কোনও ব্যানার দেখতে পাইনি। এ ধরনের কোনও খবর হলে আমরা আইনত ব্যবস্থা নেব। আমরা পার্কিং করলে রেলস্টেশন চত্বরে জায়গা একর করি এবং কোনও এক ব্যক্তিকে টেন্ডার দিই।
এক টোটোচালক বাপন মাঝির দাবি, ‘ভাতার রেলস্টেশনে কোনও যাত্রী নামাতে এলেই পয়সা দিতে হবে, পার্কিং না করলেও। সকাল বেলায় বেশ কয়েকজনের কাছে পার্কিংয়ের জন্য পয়সা চাওয়া হয়েছে। পয়সা চাইছেন যিনি, তিনি সাইকেল ও সাইকেল স্ট্যান্ডের দায়িত্ব আছেন। আমরা প্রতিবাদ জানিয়েছি, এরকম কোনও পয়সা আমরা দেব না।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × five =