রাস্তার দাবিতে কোলিয়ারির কাজ বন্ধ, বিক্ষোভে গ্রামবাসী

নিজস্ব প্রতিবেদন, লাউদোহা: বিকল্প রাস্তা তৈরি না করে এলাকা ধসানোর অভিযোগে রাস্তার দাবিতে কোলিয়ারির কাজ বন্ধ করে বিক্ষোভ দুর্গাপুর ফরিদপুর ব্লকের জামগড়া গ্রামের বাসিন্দাদের। গ্রামের প্রায় শ’ পাঁচেক মানুষ মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে ঝাঁজরা কোলিয়ারির প্রধান গেট বন্ধ করে বিক্ষোভে নামল। বিক্ষোভের জেরে বন্ধ উৎপাদন এবং পরিবহণ।
গ্রামের বাসিন্দা প্রবীর ঘোষ, ভাগ্যধার পাল, প্রশান্ত চট্টোপাধ্যায়রা অভিযোগ করেন, ঝাঁজরা কোলিয়ারির ইসিএল কর্তৃপক্ষ সুপরিকল্পিত ভাবে গ্রামের প্রায় পাঁচ হাজার মানুষকে গৃহবন্দি করার চেষ্টা করছে। লাউদোহা মোড় থেকে ভাইয়া জামগড়া হয়ে বাসিয়া পর্যন্ত ৪ কিলোমিটারের কিছু অধিক পথ তৈরি হচ্ছিল রাজ্য সরকারের আরআইডিএফের উদ্যোগে। যার আনুমানিক ব্যয় বরাদ্দ হয়েছিল ২ কোটি ৪৫ লক্ষ ৫৭ হাজার ৮৮৮ টাকা। কিছুদিন ধরে শুরু হয়েছে রাস্তার কাজও, দাবি গ্রামবাসীদের। কিন্তু হঠাৎ করে গতকাল ঝাঁজরা কোলিয়ারি কর্তৃপক্ষ গিয়ে সেই কাজ বন্ধ করে দিয়েছে বলে অভিযোগ।
গ্রামবাসীদের দাবি, ইসিএলের তরফে বলা হয়েছে সাবসাইড এলাকায় রাস্তা তৈরি করা যাবে না। গ্রামবাসীদের প্রশ্ন, বিকল্প রাস্তা তৈরি না করে কোলিয়ারি কর্তৃপক্ষ কী ভাবে রাস্তা সাবসাইড করল? এই ঘটনায় চরম সমস্যায় পড়েছেন জামগড়া বাসিয়া ও প্রতাপপুর এলাকার কয়েক হাজার মানুষ। কারণ এই গ্রামগুলির প্রধান কেন্দ্র হল লাউদোহা, যেখানে রয়েছে ব্লক সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিকের অফিস, ßুñল ও ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রও।
এমতবস্থায় গ্রামের কোনও প্রবীণ ব্যক্তি অসুস্থ হলে তাঁকে ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে কী ভাবে আনা যাবে এটাই ভাবাচ্ছে গ্রামবাসীদের। পাশাপাশি এই সকল গ্রামগুলির প্রচুর ছোট ছেলেমেয়ে লাউদোহার বেশ কয়েকটি বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করার জন্য প্রতিদিন যাতায়াত করে। রাস্তা না থাকায় চরম সমস্যায় পড়তে হয়েছে তাঁদের। যেখানে জামগড়া থেকে আড়াই কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে বিদ্যালয়, ব্লক সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিকের অফিস, স্বাস্থ্যকেন্দ্রে আসা যেত। সেখানে রাস্তা না থাকায় মাধাইগঞ্জ হয়ে প্রায় ৪ কিলোমিটার অতিরিক্ত ঘুরে লাউদোহা আসতে হচ্ছে সংশ্লিষ্ট এলাকার গ্রামবাসীদের।
চরম সমস্যায় পড়ে বাধ্য হয়েই মঙ্গলবার সকাল ন’টা থেকে ঝাঁজড়া কোলিয়ারির প্রধান গেট বন্ধ করে বিক্ষোভে সামিল হয় গ্রামবাসীরা। বিক্ষোভ জেনে সকাল ৯ টা থেকে বেলা ১ টা পর্যন্ত বন্ধ কোলিয়ারির উৎপাদন ও পরিবহণও। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন নবনিযুক্ত দুর্গাপুর ফরিদপুর তৃণমূল ব্লক সভাপতি শতদ্বীপ ঘটক। তাঁকে ঘিরেও গ্রামবাসীরা তাঁদের দৃঢ় দাবিতে অনর থাকেন। দুপুর ১ টা পর্যন্ত সমস্যার কোন সমাধান বের হয়নি বলে খবর। গ্রামবাসীদের একটাই দাবি, যত শীঘ্র সম্ভব লাউদোহা থেকে জামগড়া পর্যন্ত রাস্তা নির্মাণের কাজ শুরু করতে হবে, নইলে এই আন্দোলন চলবে এবং আগামী দিনে আরও বৃহত্তর হবে বলে হুঁশিয়ারি গ্রামবাসীদের। এই ঘটনায় ইসিএলের কোনও আধিকারিকের প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × one =