গ্রেপ্তার ৪০ আশাকর্মীর নিঃশর্ত মুক্তি ও বেতনের দাবিতে বিক্ষোভ, অবরোধ

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাঁকুড়া: আর ভাতা নয়, সরকারি স্বাস্থ্যকর্মীর মর্যাদা দিয়ে বেতন ঘোষণার দাবিতে ধর্মতলায় আন্দোলন করতে গিয়ে সোমবার গ্রেপ্তার হওয়া ৪০ জন আশাকর্মীর নিঃশর্ত মুক্তি ও বেতনের দাবিতে মঙ্গলবার বাঁকুড়ার জয়পুরে আছড়ে পড়ল আশা কর্মীদের বিক্ষোভ। এদিন জয়পুরে আশাকর্মীরা স্থানীয় বিডিও অফিস, থানা, স্বাস্থ্যকেন্দ্রে বিক্ষোভ দেখানোর পর জয়পুরের কৃষক বাজারের সামনে বিষ্ণুপুর কোতুলপুর রাজ্য সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভে সামিল হন।
আশাকর্মীদের মাসিক সরকারি ভাতা নয়, সরকারী কর্মী হিসাবে স্বীকৃতি দিয়ে তাঁদের বেতন কাঠামো ঘোষণার দাবিতে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন চালিয়ে আসছেন এ রাজ্যের আশা কর্মীরা। সোমবার সেই দাবিতে শহর তিলোত্তমার ধর্মতলায় আন্দোলন শুরু করেন রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা আশাকর্মীরা। আশাকর্মীদের দাবি, সেখান থেকে পুলিশ অন্যায় ভাবে আশা কর্মী সংগঠনের রাজ্য সম্পাদিকা সহ মোট ৪০ জনকে গ্রেপ্তার করে। এই ৪০ জনকে নিঃশর্ত মুক্তি দেওয়ার দাবিতে এদিন সকাল থেকে সোচ্চার হয় পশ্চিমবঙ্গ আশা কর্মী ইউনিয়ন।
থানা, বিডিও অফিস, ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে বিক্ষোভ দেখানোর পাশাপাশি তাঁরা কৃষক বাজার মোড়ের কাছে বিষ্ণুপুর কোতুলপুর রাজ্য সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভে ফেটে পড়েন। বিক্ষোভকারীদের দাবি, আশাকর্মীদের দিয়ে স্বাস্থ্য দপ্তরের যাবতীয় কাজ করানো হয়। অথচ তাঁদের না আছে সরকারি কর্মীর মর্যাদা, না আছে বেতনের ব্যবস্থা। সামান্য ভাতার বিনিময়ে দিনের পর দিন তাঁদের কাজ করতে বাধ্য করা হচ্ছে। অবিলম্বে এই পরিস্থিতির বদল না হলে আগামী দিনে আরও বৃহত্তর আন্দোলন, এমনকি প্রয়োজনে লাগাতার কর্মবিরতির হুঁশিয়ারি দিয়েছেন আন্দোলনকারী আশাকর্মীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *