ইউক্রেনের মসজিদে শেল হামলায় শিশু, মহিলা-সহ মৃত ৮০

কিভ দখলের দিকে ক্রমশ এগোচ্ছে রাশিয়া (Russia)। একই সঙ্গে ইউক্রেনের (Ukraine) অন্যান্য শহরেও চলছে লাগাতার বোমা বর্ষণ ও শেল হামলা (Bombing)। রাশিয়ার হামলায় প্রতি দিনই মৃত্যু হচ্ছে বহু সাধারণ মানুষের। এই পরিস্থিতিতে ইউক্রেন দাবি করল, একটি মসজিদে রাশিয়ার শেল হামলায় ৮০ জন সাধারণ নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের মধ্যে রয়েছেন একাধিক মহিলা ও শিশুও। ইউক্রেনের বিদেশ মন্ত্রক একটি বিবৃতিতে জানিয়েছে, মারিয়োপোলের সুলতান সুলেমান মসজিদে রুশ হামলা হয়েছে।

ইউক্রেনের দাবি, রুশ হামলা থেকে প্রাণ বাঁচাতে মারিয়োপোলে ওই মসজিদে আশ্রয় নিয়েছিলেন ৮০ জন। তাঁদের মধ্যে ছিলেন মহিলা ও শিশুরাও। ইউক্রেন সরকারের দাবি, মূলত ওই এলাকায় বসবাসকারী তুরস্কের পরিবারগুলি মসজিদে আশ্রয় নিয়েছিল। কারণ, যুদ্ধের সময় মসজিদের মতো ধর্মীয় স্থল কিংবা স্কুল, হাসপাতালে হামলা না চালানোই আন্তর্জাতিক দস্তুর। ইউক্রেনের অভিযোগ, রাশিয়া সব জেনেও ওই মসজিদে হামলা চালায়।

অন্য দিকে, ইউক্রেনের আশঙ্কা, কিভ, খারকিভ এবং ডনবাস এলাকায় হামলা আরও তীব্র করার পথে চলেছে মস্কো। সূত্রের খবর, ইউক্রেনের দক্ষিণাংশের মেলিটোপোলে ঢুকে পড়েছে রুশ বাহিনী। সেই শহরের মেয়রকেও অপহরণ করা হয়েছে বলে দাবি ইউক্রেনের সংসদের। অন্তত দশ জন সশস্ত্র ব্যক্তি মেলিটোপোলের মেয়র ইভান ফেডেরোভকে অপহরণ করে নিয়েছে।

কিভ শহরের তিন দিক ঘিরে মোতায়েন রুশ ট্যাংক বহরও শহর দখলের চূড়ান্ত যুদ্ধে নেমে পড়েছে বলে পশ্চিমী সংবাদমাধ্যমের খবর। প্রসঙ্গত, গ্রাদ-এর ৫০০ মিটার- ২০ কিলোমিটার পাল্লার মডেলগুলি ব্যবহার করেই ইতিমধ্যেই খারকিভ, খেরসন, মারিয়ুপোল-সহ কয়েকটি শহরে লড়াই চালিয়েছে রুশ বাহিনী। এ ছাড়া টি-৭২ ট্যাংকের উপর বসানো ‘টস-১’ রকেটও ছোড়া হচ্ছে কিভ লক্ষ্য করে। কিভ-মুখী রুশ আর্টিলারি কনভয়ে ৫৫০ কিলোমিটার পাল্লার এই এমএলআরএস-এর উপস্থিতি দেখা গিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 − 20 =