বেআইনি নির্মাণে নজরদারিতে কলকাতা পুরকর্মীদের জন্য আসছে বিশেষ অ্যাপ

কলকাতার বেআইনি নির্মাণে লাগান পরাতে বিশেষ অ্যাপ আনছে কলকাতা পুরসভা। ১ এপ্রিল থেকেই অ্যাপ চালু করতে চলেছে পুরসভা কর্তৃপক্ষ। তার আগে একটি বিশেষ প্রশিক্ষণ শিবিরে ইঞ্জিনিয়ারদের বুঝিয়ে দেওয়া হল এই অ্যাপের মাধ্যমে কী ভাবে শহরকে বেআইনি নির্মাণ মুক্ত করবেন তাঁরা। তবে, এই অ্যাপ পুর কর্মীদের জন্য। জন সাধারণের জন্য নয়।

গার্ডেনরিচে বাড়ি ভেঙে ১২ জনের মৃত্যুতে কলকাতা পুরসভার দিকেই আঙুল তুলেছে। শহর জুড়ে যে অসংখ্য বেআইনি নির্মাণ হয়েছে ও হচ্ছে তা নিয়ে সরব হন সকলেই। স্বয়ং মেয়র ফিরহাদ হাকিম বলেছিলেন, বেআইনি নির্মাণ একটি সামাজিক ব্যাধির পর্যায়ে পৌঁছে গিয়েছে। এর পরেই পুরসভার বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল ‘কেএমসি ওয়ার্ক ডায়েরি’ নামের একটি বিশেষ অ্যাপ তৈরির ব্যাপারে। শনিবার পুরসভা শেখাল, কী ভাবে সেই অ্যাপের মাধ্যমে বেআইনি নির্মাণকে চিহ্নিত করা হবে, কী ভাবেই বা সেগুলির বিরুদ্ধে উপযুক্ত পদক্ষেপ করা হবে পুরসভার তরফে।

পুরসভা সূত্রে খবর, এই অ্যাপের সাহায্যে কলকাতা পুর এলাকায় বেআইনি নির্মাণ সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য ও ছবি তুলে ওই অ্যাপে আপলোড করা হবে। অ্যাপে যে তথ্য ও ছবি থাকবে তা জোগান দিতে হবে পুরসভার ইঞ্জিনিয়ারদেরই। প্রতিদিন অফিস শুরুর সময় হাজিরা দিয়ে নিজ নিজ এলাকায় নির্মীয়মাণ বহুতল পরিদর্শনে বেরোবেন ইঞ্জিনিয়ারেরা। প্রতিটি নির্মাণস্থল ঘুরে দেখবেন। বেআইনি নির্মাণ নজরে পড়লেই দ্রুত সে সংক্রান্ত তথ্য এবং ছবি আপলোড করতে হবে অ্যাপে।

পুরসভার বরো এগ্জিকিউটিভ ইঞ্জিনিয়ার সেই অ্যাপ থেকে পাওয়া তথ্য জানাবেন ডেপুটি চিফ ইঞ্জিনিয়ার ও ডিজি (বিল্ডিং)-কে। তাঁরা সেই রিপোর্ট কলকাতা পুরসভার কমিশনারকে পাঠাবেন। কমিশনার বিষয়গুলি খতিয়ে দেখে তা মেয়রকে জানাবেন। তবে তার আগে ওই বাড়ির মালিককে নোটিস দিয়ে সতর্ক করতে হবে। তাতেও কাজ না হলে ‘স্টপ অফ ওয়ার্ক’-এর নোটিস ধরাতে হবে। গোটা বিষয়টি মেয়রের কাছে পৌঁছনোর আগেই যাবতীয় পদক্ষেপ করবেন পুরসভার আধিকারিক ও ইঞ্জিনিয়ারেরা।

শনিবার এই বিষয়টিই হাতেকলমে শেখানো হয়েছে কলকাতা পুরসভার বিল্ডিং বিভাগের সাব অ্যাসিস্ট্যান্ট ইজ্ঞিনিয়ারদের। কলকাতা পুর ভবনের কনফারেন্স হলে এই প্রশিক্ষণ হয়। অংশগ্রহণ করেছিলেন ৮০ জন ইঞ্জিনিয়ার। পুরসভা সূত্রে খবর, এই প্রশিক্ষণ শেষ হলেই আগামী ১ এপ্রিল থেকে এই অ্যাপ চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে তাদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

7 + seven =