শুশুনিয়া পাহাড়ে বেড়াতে এসে হোটেলের দোতলার জানলা থেকে পড়ে গুরুতর শিশু

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাঁকুড়া: শুশুনিয়া পাহাড়ে বেড়াতে এসে বড়সড় দুর্ঘটনা ঘটল। হোটেলের দোতলার ঘরের জানালা থেকে নীচে পড়ে গুরুতর আহত হল পাঁচ বছরের এক শিশু। আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই শিশুকে প্রথমে ছাতনা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও পরে তাকে কলকাতায় নিয়ে যাওয়া হয়। পর্যটক দলটি এই ঘটনার জন্য দায়ী করেছে হোটেল কর্তৃপক্ষকেই।
স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার পর্যটকদের একটি দল শুশুনিয়া পাহাড়ে বেড়াতে আসে। ওই দলে বেশ কয়েকটি শিশু ছিল। পর্যটক দলটি পাহাড় লাগোয়া একটি বেসরকারি হোটেলে ওঠে। গতকাল সন্ধ্যার আগে পর্যটক দলে থাকা শিশুরা যখন খেলছিল, সেই সময় বিহান দাস নামের বছর পাঁচেকের একটি শিশু জানলার রেলিংয়ে কোনও ভাবে হেলান দিলে রেলিং সহ শিশুটি দোতলা থেকে নীচে পড়ে যায় বলে অভিযোগ। বিষয়টি পর্যটকদলের অন্যান্যদের নজরে আসতেই গুরুতর আহত শিশুটিকে উদ্ধার করে প্রথমে ছাতনা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ও পরে কলকাতার একটি হাসপাতালে নিয়ে যায়।
পর্যটক দলটির দাবি, যে জানালায় এই দুর্ঘটনা ঘটেছে, সেখানে রেলিংটি শুধু আলতো করে রাখা ছিল। তাই হালকা ছোঁয়া লাগতেই তা পড়ে যায়। দুর্ঘটনার পর শিশুটির চিকিৎসারও কোনও ব্যবস্থা করেনি হোটেল কর্তৃপক্ষ। স্বাভাবিক ভাবে এই ঘটনার জন্য হোটেল কর্তৃপক্ষকে কাঠগড়ায় তুলে কঠোর শাস্তির দাবিতে সরব হয়েছে পর্যটক দলটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *