ধর্মদ্রোহিতার মামলা রুজু, গ্রেপ্তার হতে পারেন ইমরান খান

ইমরান খান (Imran Khan) গ্রেপ্তার হতে পারেন। প্রাক্তন পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ফয়সলাবাদে ধর্মদ্রোহিতা মামলা দায়ের হয়েছে। দিনকয়েক আগে ইমরানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের কর্মী, সমর্থকরা সৌদি আরবের মদিনা সফরে যাওয়া পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফকে (Shehbaz Sharif) বিক্ষোভ দেখিয়ে চোর চোর বলে স্লোগান দিয়েছেন। তাঁকে হেনস্থার অভিযোগে ইমরান ও আরও অনেকের বিরুদ্ধে ওই মামলা রুজু করেছে বর্তমান পাকিস্তান সরকার।

পাক মিডিয়ার খবর, দেশের অভ্যন্তরীণমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ ইমরানের ক্ষেত্রে কঠোর অবস্থান নিয়েছেন। মদিনা সফরে যাওয়া পাক প্রধানমন্ত্রী, তাঁর প্রতিনিধিদলের বিরুদ্ধে স্লোগান দেওয়া, হুজ্জুতি ও গুন্ডামি সংক্রান্ত মামলায় গদিচ্যুত ইমরানকে গ্রেপ্তারির হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি। মামলায় বাকি অভিযুক্তদের তালিকায় প্রাক্তন অভ্যন্তরীণমন্ত্রী শেখ রশিদ, ইমরানের চিফ অব স্টাফ শাহবাজ গিলের নামও রয়েছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে শাহবাজ ও তাঁর নেতৃত্বাধীন দলের সদস্যরা গত বৃহস্পতিবার মদিনায় পয়গম্বরের মসজিদে পা রাখতেই একদল লোককে চারদিক থেকে তাদের উদ্দেশে চোর, গদ্দার বলে চিৎকার করতে দেখা যাচ্ছে। তারা নাকি ইমরানের সমর্থক। শাহবাজদের নিশানা করে অশ্লীল মন্তব্যও ভেসে আসে ভিড়ের মধ্য থেকে।

পাকিস্তানে ধর্মদ্রোহিতা বরাবরই অত্যন্ত সংবেদনশীল ইস্যু, যা নিয়ে অতীতে ব্যাপক আলোড়ন হয়েছে। সেই ইস্যুকেই এবার ইমরানের বিরুদ্ধে অস্ত্র করছে শাহবাজ সরকার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × 2 =