বিশ্বের সবথেকে বড় সান্টা ক্লজের দেখা মিলল পুরীর সমুদ্র সৈকতে

জগন্নাথের শহরে বিশ্বের সবথেকে বড় সান্টা ক্লজ তৈরি করলেন বালু শিল্পী সুদর্শন পট্টনায়ক। এই সান্টা ক্লজ তৈরি করে বিশ্বরেকর্ড গড়লেন ওডিশার বালু শিল্পী সুদর্শন।

ক্রিসমাস উপলক্ষে পুরীর ব্লু ফ্ল্যাগ সমুদ্র সৈকতে বিশালাকার সান্টা ক্লজ তৈরি করেন সুদর্শন পট্টনায়ক। তবে এই সান্টা ক্লজ একটু আলাদা। বালির উপরে পেঁয়াজ দিয়ে বিশ্বের সবথেকে বড় সান্টা ক্লজ তৈরি করেছেন সুদর্শন। সান্টা ক্লজের সঙ্গে দেওয়া হয়েছে এক বিশেষ বার্তাও, ‘গিফ্ট অ্য প্লান্ট, গ্রিন দ্য় আর্থ’ অর্থাৎ গাছ উপহার দিন, সবুজ করুন পৃথিবীকে।

কেন গাছ লাগানোর বার্তা দিলেন, সে প্রসঙ্গে সুদর্শন পট্টনায়েক বলেন, ‘আমরা সকলেই জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব কতটা, তা জানি। এই সময়ে দাঁড়িয়ে আমাদের আরও গাছ লাগানো প্রয়োজন। ৮ ঘণ্টা লেগেছে এই স্থাপত্য তৈরি করতে। যখন গোটা বিশ্ব ক্রিসমাস উদযাপন করবে, তখন দেখবে যে ভারতে সবথেকে বড় বালি ও পেঁয়াজের সান্টা ক্লজ তৈরি করা হয়েছে।’

সংবাদসংস্থা এএনআই-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বালুশিল্পী সুদর্শন পট্টনায়েক জানান, এই সান্টা ক্লজ তৈরি করতে দুই টন পেঁয়াজ ব্যবহার করেছেন।  তিনি বলেন, ‘প্রতি বছরই ক্রিসমাসে আমরা নতুন কিছু তৈরি করার চেষ্টা করি। এবার আমরা বালি ও পেঁয়াজ দিয়ে বিশ্বের সবথেকে বড় সান্টা ক্লজ তৈরি করেছি, যার উচ্চতা ১০০ ফুট, ২০ ফুট উচু ও ৪০ ফুট চওড়া। এর জন্য ২ টন পেঁয়াজ ব্যবহার হয়েছে। আমরা গাছ উপহার দিয়ে পৃথিবীকে সবুজ করার বার্তা দিয়েছি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *