মহিলাদের আইপিএল : চিন্নাস্বামীতে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ঝুমলেন ‘পাঠান’

ভারতে ক্রিকেট স্রেফ খেলা নয়, ধর্ম। ক্রিকেট পারে সকলকে এক সূত্রে বাঁধতে। তবে ক্রিকেটটাও একটা সময় ছিল পুরুষতান্ত্রিকই। ধীরে ধীরে চিত্র বদলেছে। মেয়েদের ক্রিকেটেও বিশ্বে আলাদা জায়গা করে নিয়েছে ভারত। বিশ্বের সেরা ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট লিগ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের আয়োজক ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ কতটা জনপ্রিয়, আলাদা করে বলার প্রয়োজন পড়ে না। তেমনই বহু অপেক্ষার পর গত বছর শুরু হয়েছে উইমেন্স প্রিমিয়ার লিগ। ক্রিকেটের রাজত্বে আলাদাই জায়গা করে নিয়েছে উইমেন্স প্রিমিয়ার লিগ। আজ শুরু হচ্ছে উইমেন্স প্রিমিয়ার লিগে দ্বিতীয় সংস্করণ। প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি গত বারের চ্যাম্পিয়ন মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ও রানার্স দিল্লি ক্যাপিটালস। বেঙ্গালুরুর চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে স্মৃতি-হরমনপ্রীতদের ‘কুইনডম’-এ বলিউড এবং ক্রিকেটের মেলবন্ধন।

শাহরুখ খান- বলিউডের বাদশার অনবদ্য বক্তব্য। নারীশক্তি নিয়ে কথা বলেন শাহরুখ। যদি সব ক্ষেত্রেই মেয়েরা এগিয়ে যেতে পারে, ক্রিকেটে কেন নয়? আর উইমেন্স প্রিমিয়ার লিগ শুধুই ক্রিকেট নয়, নারীদের উত্থানের মঞ্চ এই টুর্নামেন্ট। শাহরুখ খান মঞ্চে থাকবেন, শুধুই সিরিয়াস কথা হবে না এমনটাই স্বাভাবিক। আরসিবির সমর্থকরা কিং কোহলির জন্য অপেক্ষা করে থাকে। সেখানে আপাতত কিং খানের দাপট। তবে মঞ্চটা হরমনপ্রীত, স্মৃতি মান্ধানাদের জন্যই। বারবার ঘুরে আসছে সেই ক্রিকেটই। গ্যালারি কানায় কানায় পূর্ণ।

শাহরুখ খানই স্টেজে ডেকে নিলেন, উইমেন্স প্রিমিয়ার লিগের প্রতিটি টিমের অধিনায়ককে। প্রথমেই ডাকেন দিল্লি ক্যাপিটালস অধিনায়ক মেগ ল্যানিংকে।
এরপর কিং খান ডাকেন গুজরাট জায়ান্টস অধিনায়ক বেথ বুনিকে। তাঁকে নিয়ে মজার মন্তব্য শাহরুখের। মুনিকে নিয়ে বলেন, কিছুদিন এখানে থাকলে আমরা ওকে চাঁদ বলে ডাকব এবং গাইব ‘চান্দ মেরা দিল, চান্দনি হো তুম।’
তবে সবচেয়ে বেশি চিয়ার হল ভারতীয় ক্রিকেটের কুইন স্মৃতি মান্ধানাকে ডাকতেই। তাঁকে প্রিন্সেসের মতোই স্বাগত জানান শাহরুখ খান। এরপর আসেন অ্যালিসা হিলি। সবশেষে ট্রফি নিয়ে প্রবেশ হরমনপ্রীত কৌরের। পাঁচ অধিনায়কের সঙ্গে Wঞ্ঝজ্র-এর থিম সংয়ে নাচলেন কিং খানও। ফটোসেশন করলেন। এর সঙ্গেই ঢাকে কাঠি পড়ে গেল উইমেন্স প্রিমিয়ার লিগের নতুন মরসুমের।

শাহরুখ খানের আগে পারফর্ম করেন বলিউডের অন্যান্য তারকা যেমন শাহিদ কাপুর, বরুণ ধাওয়ান, সিদ্ধার্থ মলহোত্রা, কার্তিক আরিয়ান, টাইগার স্রফ।
পাঁচ দলের অধিনায়কের সঙ্গে ফটোসেশন করেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড প্রেসিডেন্ট রজার বিনি, সচিব জয় শাহ, সহ সভাপতি রাজীব শুক্ল, কোষাধ্যক্ষ আশিস সেলার, যুগ্মসচিব দেবজিৎ সইকিয়া, আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের প্রধান অরুণ ধুমাল। এরপর অপেক্ষা ছিল টুর্নামেন্ট এবং ম্যাচ শুরুর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

18 − four =