ইভটিজিং ও পাড়ার রোমিওদের বাগে আনতে মহিলা বাইক স্কোয়াড টিম

ইভটিজার ও রোমিওদের বাগে আনতে শহরের আনাচে-কনাচে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে জেলা পুলিশের মহিলা বাহিনীর বাইক স্কোয়াড টিম। রীতিমতো মার্শাল আর্ট প্রশিক্ষিত ১০ জন মহিলা পুলিশকর্মীকে বিশেষ পোশাকে সজ্জিত করে স্পেশ্যাল বাইক স্কোয়াড টিম গঠন করেছে জেলা পুলিশ। আর সেই মহিলা টিমের সদস্যরা ইংরেজবাজার এবং পুরাতন মালদা শহরের অলিগলিতে নজর রাখছে বিভিন্ন ঘটনার। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা চলাকালীন কোনও পরীক্ষার্থীরা যাতে সমস্যার মধ্যে না পড়েন সেক্ষেত্রেও চরম তৎপরতার সঙ্গে তদারকি করছে এই মহিলা পুলিশ বাইক স্কোয়াড টিম। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত কোনও এলাকা বাদ নেই, যেখানে এই মহিলা স্কোয়াড টিমের সদস্যরা অভিযান চালাচ্ছে না। ßুñল-কলেজের সামনে রকবাজদের ধরতেও তৎপর মহিলা পুলিশ কর্মীদের স্পেশ্যাল স্কোয়াড টিমের কর্মীরা। পুলিশ মহিলা পুলিশ কর্মীদের এই বাইক স্কোয়াড টিমকে দেখেই এখন অনেকটাই ভরসা পেয়েছেন ছাত্রীদের অভিভাবকেরা।
জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মোট দশটি বাইক স্কোয়াড টিম তৈরি করা হয়েছে। প্রতিটি বাইকে দু’জন করে মহিলা পুলিশ কর্মী রয়েছেন। পাঁচজন করে দুটি ভাগে ভাগ হয়ে এই বাইক স্কোয়াড টিমের মহিলা পুলিশ কর্মীরা। মালদার পুলিশ সুপার অমিতাভ মাইতি জানিয়েছেন, মহিলা বাইক স্কোয়াড টিমের সদস্যরা খুব ভালো কাজ করছে। ২৪ ঘণ্টা তাঁরা বিভিন্ন এলাকায় নজরদারি চালাচ্ছে। যে কোনও মহিলা জনিত অপরাধ দমনে এই বাইক স্কোয়াড টিম গঠন করা হয়েছে। আগামীতে জেলার অন্যান্য এলাকাতেও একইভাবে এই টিম গঠনের পরিকল্পনা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eight − four =