প্রেম করে বিয়ে, সদ্যবিবাহিতা প্রথম বর্ষের ছাত্রীর মৃত্যুতে খুনের অভিযোগ দায়ের পরিবারের

টিটব বিশ্বাস

ভালোবাসা করে বিয়ে। সদ্যবিবাহিতা প্রথম বর্ষের ছাত্রীর মৃত্যুতে খুনের অভিযোগ দায়ের পরিবারের, গ্রেপ্তার স্বামী। পুলিশ জানিয়েছে মৃতার নাম লিজা মজুমদার (১৮)। পরিবার জানিয়েছে, বাগদার সিন্দ্রানী পঞ্চায়েতের খয়রামারি এলাকার বাসিন্দা লিজার সঙ্গে অশোকনগরের ৮ নম্বরের কমলা নেহেরু এলাকার বাসিন্দা সুজন বিশ্বাসের বছরখানেক ধরে ভালোবাসার সম্পর্ক ছিল। খয়রামারি এলাকায় যুবকের এক আত্মীয় বাড়িতে অনুষ্ঠানে গিয়ে লিজার সঙ্গে তার পরিচয় হয়। এরপর সম্পর্কের কিছুদিনের মধ্যেই বাড়ি থেকে পালিয়ে যুবকের কাছে চলে আসে লিজা। মাস দুয়েক আগে আইনি মতে তারা বিবাহ করে। তবে পালিয়ে বিয়ে করায় বাপের বাড়ির সঙ্গে লিজার সম্পর্ক ছিল না। সোমবার বেলা সাড়ে এগারোটা নাগাদ শ্বশুর বাড়ি থেকে ফোন করে জানানো হয় লিজা মারা গিয়েছে। পরিবারের লোকজন ছুটে এসে অশোকনগর স্টেট জেনারেল হাসপাতালে এসে দেখতে পায় লিজা মৃত অবস্থায় রয়েছে। তরুণীর মুখে একাধিক মারধরের আঘাত রয়েছে। ঘটনায় সোমবার বিকেলে মৃতার পরিবারের তরফে  অশোকনগর থানায় লিজাকে ফাঁস দিয়ে মেরে ফেলার অভিযোগ দায়ের করেছে। ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ সোমবার রাতে স্বামী সুজন বিশ্বাসকে গ্রেপ্তার করে। যদিও পলাতক শ্বশুর-শাশুড়ি। মৃতের পরিবার জানিয়েছে বিয়ের পর থেকে জিনিসপত্র চেয়ে শ্বশুরবাড়ির লোকেরা আত্মীয়দের মারফত বাপের বাড়িতে খবর পাঠিয়ে চাপ দিচ্ছিল। লিজাকে মারধোর করা হত। হাবড়ার একটি কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রী এই নববধূর মৃত্যুতে পরিবারের তরফে অভিযুক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করা হয়েছে। মঙ্গলবার মৃতদেহের ময়নাতদন্ত হয় বারাসাত জেলা হাসপাতালে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

18 + sixteen =