শিক্ষক নিয়োগ হয়ে যাওয়ার পরে জনস্বার্থ মামলা কেন? প্রশ্ন তুলল রাজ্য

কলকাতা: প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে (TET) দুর্নীতি হয়েছে, অভিযোগ হাইকোর্টে চলছে জনস্বার্থ মামলা। সেই মামলা নিয়ে এবার প্রশ্ন তুলল রাজ্য। রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনারেল সৌমেন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায় আদালতে জানান, ২০১৪ সালে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা হয়েছিল। ২০১৬ সালে সেপ্টেম্বর মাসে সেই পরীক্ষার রেজাল্টও বেরিয়ে যায়। তখন থেকেই নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হয়। ২০১৯ সালে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। এতদিন পর এই মামলা করার যৌক্তিকতা কোথায়?
তিনি বলেন, ‘৬ বছর কেটে যাওয়ার পর কেন জনস্বার্থ মামলা দায়ের করা হয়। যিনি এই মামলা দায়ের করেছেন তিনি শিক্ষক নয়, তিনি পরীক্ষার্থীও নন, তাহলে কেন এই মামলা করলেন?’ তাঁর পাল্টা অভিযোগ, শুধুমাত্র প্রচারে আসার জন্য এই মামলা করা হয়েছে।
তবে মামলাকারীর পক্ষের আইনজীবী তরুণজ্যোতি তিওয়ারি এদিন আদালতে জানিয়েছেন, এই নিয়োগে বড় দুর্নীতি হয়েছে। তাই সিবিআই তদন্তের প্রয়োজন রয়েছে। এদিন প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব ও বিচারপতি রাজর্ষি ভরদ্বাজের ডিভিশন বেঞ্চ শুনানি শেষে র্দেশ দেয়, এক সপ্তাহের মধ্যে রাজ্যকে তার বক্তব্য হলফনামা দিয়ে জানাতে হবে। মামলার পরবর্তী শুনানি হবে ১৬ মে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × 5 =