কেন বন্ধ রাখা হবে ইন্টারনেট? রাজ্যের কাছে হলফনামা চাইল কলকাতা হাই কোর্ট

কলকাতা: মাধ্যমিক পরীক্ষা চলাকালীন ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। এই সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতেই হাই কোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়। মাধ্যমিক পরীক্ষা চলাকালীন কেন বন্ধ থাকবে ইন্টারনেট? রাজ্য সরকারকে হলফনামা জমা দেওয়ার নির্দেশ দিল হাই কোর্টের প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ। বৃহস্পতিবারই জমা দিতে হবে হলফনামা।
গত সোমবার থেকে রাজ্যজুড়ে শুরু হয়েছে মাধ্যমিক পরীক্ষা। দু’ বছর পর এবার পরীক্ষাকেন্দ্রেই পরীক্ষা হচ্ছে। পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস রুখতে কঠোর মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। পরীক্ষা শুরুর প্রথম সোয়া এক ঘণ্টা শৌচালয়ে যেতে দেওয়াও হচ্ছে না পড়ুয়াদের। এছাড়াও রাজ্যের কিছু এলাকাকে স্পর্শকাতর হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। হোয়াটস অ্যাপে প্রশ্ন ফাঁস রুখতে পরীক্ষার দিনগুলিতে সকাল ১১টা থেকে বিকেল ৩.১৫ পর্যন্ত ওই সব এলাকায় ইন্টারনেট নিয়ন্ত্রণ করার সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়। সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে খবর মালদা, মুর্শিদাবাদ, উত্তর দিনাজপুর, কোচবিহার, জলপাইগুড়ি, বীরভূম ও দার্জিলিংয়ের একাধিক জায়গায় ইন্টারনেট পরিষেবা নিয়ন্ত্রণের সিদ্ধান্ত নেয় রাজ্য সরকার।
এই সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে কলকাতা হাই কোর্টের প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়। মামলাকারীর দাবি, রাজ্য সরকারের এই সিদ্ধান্তের ফলে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যাহত হওয়ার সম্ভাবনা। কারণ, করোনা কালে অনলাইন পরিষেবাতেই বেশি জোর দেওয়া হয়েছে। তারপরই রাজ্য সরকারকে হলফনামা জমা দেওয়ার নির্দেশ হাই কোর্টের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six + sixteen =