তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তরের উদ্যোগে পালিত টুসু পরব

নিজস্ব প্রতিবেদন, পুরুলিয়া: পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পুরুলিয়া জেলা তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগের ব্যবস্থাপনায় ও পুরুলিয়া জেলার মানভূম কালচারাল আকাদেমির আয়োজনে সোমবার শিমুলিয়ার কাঁসাই নদীর পাড়ে অনুষ্ঠিত হল টুসু পরব। এদিন টুসু মেলার আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্বোধন করেন পুরুলিয়া জেলা পরিষদের সভাধিপতি নিবেদিতা মাহাতো। এই মেলায় ছিল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সহ টুসু গীত ও টুসুর চৌদল প্রতিযোগিতা।
সোমবার ছিল মকর সংক্রান্তি। পুরুলিয়া জেলার একটি বড় উৎসব। আর এই উৎসবে সমস্ত সম্প্রদায়ের মানুষ সামিল হয়। পুরুলিয়ার কংসাবতী নদী সহ জেলার বিভিন্ন নদীতেই মকর সংক্রান্তি উপলক্ষে জমে ওঠে অস্থায়ী মেলা। আর সেই মেলায় হাজার হাজার মানুষের সমাগম। সোমবার পুরুলিয়ার কংসাবতী নদীতে এমনি একটি গ্রামীণ মেলায় হাজার হাজার মানুষের সমাগম হয়েছিল। যদিও উৎসবকে আরও জনপ্রিয় করতে রাজ্য সরকার সম্প্রতি নতুন নতুন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।
সোমবার পুরুলিয়ার কংসাবতী নদীতে টুসু গীত প্রতিযোগিতা ও টুসুর চৌদল প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয় পুরুলিয়া জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে। এদিন জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বহু প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করেন এই প্রতিযোগিতায়। কংসাবতী নদীতে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দেন পুরুলিয়া জেলা পরিষদের সভাধিপতি নিবেদিতা মাহাতো, প্রাক্তন মন্ত্রী শান্তিরাম মাহাতো, পুরুলিয়া জেলা তথ্য ও সংস্কৃতি আধিকারিক সিদ্ধার্থ চক্রবর্তী, রঘুনাথপুর মহকুমা তথ্য ও সংস্কৃতি আধিকারিক সায়ন ঘোষ, পুরুলিয়া পুরসভার চেয়ারম্যান নবেন্দু মাহালি সহ অন্যান্যরা।
সভাধিপতি বলেন, ‘সম্প্রতি এই ধরনের প্রতিযোগিতামূলক অনুষ্ঠান করার ফলে শিল্পীদের আগ্রহ অনেকাংশে বেড়েছে। এদিন কংসাবতী নদীতে টুসু বিসর্জনকে কেন্দ্র করে কংসাবতী নদীতে একটা অস্থায়ী মেলা হয়। সেখানে হাজার হাজার মানুষের ভিড় জমে। ছিল কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *