মহিলাকে উত্যক্ত করা-সহ অপহরণের অভিযোগ উঠল তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্যার ছেলের বিরুদ্ধে

বিউটি পার্লারের মালকিন এবং কর্মীদের কুপ্রস্তাব দেওয়া ও উত্যক্ত করা সহ অপহরণের চেষ্টার অভিযোগ তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্যার ছেলের বিরুদ্ধে, অভিযুক্তকে ধরে গণধোলাইয়ের ছবি ভাইরাল। উত্তর ২৪ পরগনার বাগদা থানা এলাকার এক বিউটি পার্লারের ব্যানার থেকে ফোন নম্বর নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে পার্লারের মালকিন ও তার কর্মচারীদের উত্যক্ত করা এবং বিভিন্ন ভাবে কুপ্রস্তাব দেওয়া অপহরণ, নারী পাচারের অভিযোগ উঠল তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্যার ছেলের বিরুদ্ধে। অভিযুক্তের নাম মিঠুন বালা। তার মা মাধুরী বালা সিন্দ্রনী গ্রামপঞ্চায়েতের মাগুরকোনা গ্রামের তৃণমূলের সদস্যা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, আষাঢ়ু বাজার থেকে পার্লারের দোকান বন্ধ করে পাশে একটা কাজে যাচ্ছিলেন পার্লারের মালকিন বছর ৩৮ এর মহিলা। অভিযোগ সেই সময় বাজারের কাছে গ্রাম পঞ্চায়েত অফিসের পাশ থেকে তাকে গাড়িতে করে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে মিঠুন। মহিলা চিৎকার করলে তাকে মারধরও করে বলে অভিযোগ। মহিলার চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এসে মিঠুনকে ধরে মারধর করে। সেই মারধরের মুহূর্তের ছবি এখন ভাইরাল। ™রবর্তীতে মিঠুনের নামে বাগদা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন নির্যাতিতা। অভিযোগের ভিত্তিতে গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বাগদা থানার পুলিশ। যদিও তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ মিথ্যা বলে দাবি করেছেন অভিযুক্ত মিঠুন বালা। এই ঘটনাকে রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র বলে দাবি করেছেন সিন্দ্রানি গ্রাম পঞ্চায়েতের পঞ্চায়েত সদস্যা মাধুরী বালা। এই বিষয়ে মাধুরী বালা বলেন, রাজনৈতিক কারণে পুরোপুরি মিথ্যা অভিযোগ করা হচ্ছে। ™ুলিশ তদন্ত করে দেখুক আমার ছেলে দোষী হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে পুলিশ প্রশাসন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *