দিলীপ ঘোষকে আড়াই লক্ষ ভোটে হারানোর দাবি তৃণমূল প্রার্থী কীর্তির

নিজস্ব প্রতিবেদন, বর্ধমান: দিলীপ ঘোষকে ২ লক্ষ ৪০ হাজার ভোটে পরাজিত করার দাবি জানালেন বর্ধমান দুর্গাপুর লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী কীর্তি আজাদ।
নিবার্চন কমিশনের গাইড লাইন অনুযায়ী, রাত দশটার পর কোনও রকম প্রচার মিটিং মিছিল করতে পারবে না কোনও রাজনৈতিক দল। সেই মোতাবেক শহর বর্ধমানে ২৮ নম্বর ওয়ার্ডে মারোয়ারিদের নিয়ে সভা করেন কীর্তি আজাদ। এদিন প্রার্থী কীর্তি আজাদ মারোয়ারিদের কাছে হাতজোড় করে আবেদন করেন যে আগামী ১৩ মে ঘাসফুল চিহ্নে ভোট দেওয়ার জন্য।
বর্ধমান দক্ষিণের বিধায়ক খোকন দাস একদিকে যেমন মা মাটি মানুষের উন্নয়ন কথা তুলে ধরেন, অন্যদিকে বিজেপি প্রার্থী দিলীপ ঘোষের কড়া ভাষায় সমালোচনা করেন। বিধায়ক বলেন, ‘দিলীপ ঘোষ একজন ক্ষ্যাপা, তাই তো বর্ধমানে এসে বক্তব্য রেখে বলেন যে, গোরুর দুধ থেকে সোনা বের হয়, আরএসপি-বিজেপির হাফ প্যান্ট পরে হাতে একটি লাঠি নিয়ে বেড়িয়ে পড়েন। এই ধরনের মানুষ মোটেই ভালো নন।’ এদিন দিলীপ ঘোষের উদ্দেশে বলেন, ‘নারীদের সম্মান দিতে পারে না বিজেপির দিলীপ ঘোষ। তাই কোন সময় মা দুর্গাকে নিয়ে মন্তব্য তো কোন সময় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য করেন।’
আজ শুক্রবার গলসিতে দুই প্রার্থী দিলীপ ঘোষ এবং কীর্তি আজাদের প্রচার মিছিল হয় দেদার। তৃণমূল প্রার্থী কীর্তি আজাদ প্রথমে পৌঁছন গলসি ১ নং ব্লকের কলকল গ্রামে,প্রথমেই গ্রামেরই এক শিবমন্দিরে পুজো দেন এবং গলায় খোল ঝুলিয়ে আদিবাসী নৃত্যে মেতে ওঠেন। আবার খেলার মাঠে হাতে ব্যাট নিয়ে যুবকদের সঙ্গে ক্রিকেট খেলেন, আবার হাতে থলি নিয়ে সবজি ও মাছের বাজারে গিয়ে কেনাকাটা করেন। এছাড়া মানুষের সঙ্গে বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রচার সারেন ও কথা বলেন। এরপর মিছিল শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলেন, ‘২০১৯ সালে বিজেপির কাছে ২৪০০ ভোটে তৃণমূল কংগ্রেস হেরেছিল। কিন্তু ২০২৪-এ দিলীপ ঘোষকে ২ লক্ষ ৪০ হাজার ভোটে পরাজিত করব।’ এছাড়া নানান উসকানিমূলক বক্তব্যের জন্য দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে ধিক্কার জানান তৃণমূল প্রার্থী কীর্তি আজাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nineteen + 18 =