গরমের ছুটিতে কোথায় যাবেন? রইল অসাধারণ কয়েকটি জায়গার খোঁজ

গরম মানেই হাঁসফাস।ছুটির জন্য এমন জায়গায় বাছতে হবে, যেখানে আবহাওয়া মনোরম।প্রায় প্রত্যেক রাজ্যেই আছে পাহাড়। তার রূপ এক এক জায়গায় এক একরকম। (summer destination) আবহাওয়ার দিক দিয়ে বিচার  করলে গরমের ছুটিতে পাহাড়ের মজা নেওয়াটাই বেস্ট।

সিকিম (Sikkim)-

বাঙালির দীপুদা অর্থাত্ দিঘা, পুরী, দার্জিলিং যদি একঘেয়ে হয়ে যায় তাহলে বরং পাড়ি দিন সিকিমে।প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরা সিকিমের বিভিন্ন জনপদও ভীষণ পরিচ্ছন্ন। কাঞ্চনজঙ্ঘাকে যদি খুব কাছ থেকে দেখতে চান তাহলে পেলিং যেতে পারেন। আবার সিল্ক রুটটাও প্ল্যান করতে পারেন। যেতে পারেন লাচুং, লাচেন ও গুরুদোংমার।সিকিমের যেখানেই যান, মন-প্রাণ পাহাড়, নদী, সবুজের ছোঁয়ায় মন যাবে ভরে। এপ্রিল-মেতে গেলে ওখরে-বার্সের রডোডেনড্রন স্যানচুয়ারিও যেতে পারেন।

কাশ্মীর (Kashmir)-

ডাল লেক, উইলো ট্রি, চিনার, টিউলিপে সাজানো কাশ্মীরে গেলে তবেই বোঝা যায়, কেন একে ভূ-স্বর্গ বলে। শীতকালে বরফ ঢাকা কাশ্মীর একরকম। আর বসন্তে তার রূপ বদলে যায় একেবারে। টিউলিপ গার্ডেন, মুঘল গার্ডেনের রং বেরঙের ফুল, হিমবাহ, বিস্তীর্ণ উপত্যকা, লিডার নদী সব মিলিয়ে কাশ্মীর অনন্য সাধারণ। হাউজবোট থেকে শাল কাশ্মীরি কারুকাজ মুগ্ধ করবে সকলকেই। আর আছে কাশ্মীরের বিশেষ খাবার। কাওয়াবা থেকে ওয়াজ ওয়ান, মটন রোগনজোশ সহ রকমারি কাবাব।তাই সুযোগ বুঝে কাশ্মীরটা একবার ঘুরে নিন।

কুর্গ, কর্ণাটক (Coorg, Karnataka)

মনোরম আবহাওয়ায় ঘন সবুজ পাহাড়ে সৌন্দর্য যদি গরম ধোঁয়া ওঠা কফির সঙ্গে উপভোগ করতে যান, তাহলে আপনার পছন্দের তালিকায় থাকতেই পারে কুর্গ। পশ্চিমঘাট পাহাড়ের ঢালে অবস্থিত এই জেলাটি। পাহাড়, ঝরনা, হ্রদ, মন্দিরের পাশাপাশি ট্রেকিং, ব়্যাফটিং-এর সুযোগ নিয়ে এখানকার জনপদ আপনার জন্য অপেক্ষা করছে। যদি জঙ্গল আপনাকে টানে, তবে আসতেই পারেন কুর্গ।এখানে রয়েছে নাগারহোল বা রাজীব গান্ধি ন্যাশনাল পার্ক। রয়েছে তিনটি ওয়াইল্ড লাইফ স্যানচুয়ারি।

মুন্নার, কেরালা (Munnar, Kerala)

যেদিকে চোখ যায় শুধু সবুজ আর সবুজ। মাঝে মাঝে দেখা মেলে বিশাল বিশাল জলাশয়ের। কখনও পথে পড়ে পাহাড়ি ঝরনা। পাহাড়ি পাকদণ্ডী বেয়ে এক এক পাক উঠলে অপেক্ষা করে থাকে এক একরকম সৌন্দর্য। কেরালার চা-বাগানে ঘেরা পাহাড়ি এলাকা মুন্নার। কনকনে ঠান্ডার কাঁপুনি এখানে নেই, তবে গরমের কষ্টও নেই। এখানে সৃষ্টিকর্তা নিপুনভাবে প্রকৃতিকে সাজিয়েছেন। ভাল কফির পাশাপাশি এই অঞ্চলে পাওয়া যায় অত্যন্ত উত্কৃষ্ট মানের ডার্ক চকোলেট।

হিমাচলপ্রদেশ (Himachal Pradesh)

ছিটকুল বা চিতকুল, হিমাচল প্রদেশ

এই রাজ্যটির কথা বললেই মাথায় আসে সিমলা, কুলু, মানালির নাম। এই তিনটি জায়গা জনপ্রিয় হলেও হিমাচল যে কতটা সুন্দর তা জানতে সাংলা, কল্পা, ছিটকুল,নাকো, টাবো, কাজা এই জায়গাগুলো বরং ঘুরে আসুন। এখানে মণিকরণে আছে বিশাল উষ্ণ প্রস্রবণ।এছাড়া নাকো, টাবো, কাজা এককথায় মনোমুগ্ধকর।এই তিন জায়গার সঙ্গে লাদাখের ভূপ্রকৃতির মিল পাবেন।রুক্ষ শীতল মরুভূমির মধ্যে জেগে জনপদ।তারই মধ্যে দিয়ে এঁকে বেঁকে বয়ে যাচ্ছে নীল জলের নদী। তবে এই জায়গায় যথেষ্ট উচ্চতার জন্য অনেকসময় শ্বাসকষ্ট হয়। তাই বয়স্ক বা হার্টের বা হাঁপানির সমস্যা রয়েছে তেমন কাউকে নিয়ে যেতে হলে ডাক্তারের পরামর্শ নেবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 + 13 =