দাড়িভিট কাণ্ডে একক বেঞ্চের নির্দেশ চ্যালেঞ্জ করে ডিভিশন বেঞ্চে গেল রাজ্য সরকার

দাড়িভিটের গুলি কাণ্ডে এবার ডিভিশন বেঞ্চে গেল রাজ্য সরকার। রাজ্যের মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব ও ডিআইজি সিআইডির বিরুদ্ধে রুল জারি করা হয়েছিল কলকাতা হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চের তরফ থেকে। বিচারপতি রাজাশেখর মান্থার একক বেঞ্চ এই নির্দেশ দেয়। আদালত সূত্রে খবর, বিচারপতি মান্থার এই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করেই মঙ্গলবার ডিভিশন বেঞ্চে যায় রাজ্য। মামলা দায়ের করার অনুমতি চাওয়ার পর ডিভিশন বেঞ্চ মামলা করার অনুমতিও দেয় প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ। প্রসঙ্গত, রাজ্যের মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব ও এডিজি সিআইডির বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার দায়ে রুল ইস্যু করে হাইকোর্ট। বিচারপতি রাজাশেখর মান্থা নির্দেশ দিয়েছিলেন, আগামী শুনানিতে এই আধিকারিকদের আদালতে হাজির হয়ে জানাতে হবে কেন তাঁদের বিরুদ্ধে হাইকোর্ট পদক্ষেপ করবে না।
২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাসে উত্তর দিনাজপুরের দাড়িভিটে এক স্কুলে বাংলার শিক্ষক চেয়ে সরব হয় পড়ুয়ারা। এই ঘটনাকে সামনে রেখে তুমুল অশান্তির অভিযোগ ওঠে স্কু ক্যাম্পাসে। পুলিশের বিরুদ্ধে ওঠে গুলি চালানোর অভিযোগ। দুই প্রাক্তন ছাত্র মারা যায়। নিহতদের পরিবারের অভিযোগ, পুলিশের গুলিতে এই মৃত্যু হয়। যদিও পুলিশ প্রশাসনের তরফ থেকে এই অভিযোগ অস্বীকার করা হয় প্রথম থেকেই। প্রথম থেকে সিআইডি এই ঘটনার তদন্ত করছিল। তবে আদালত ১০ মাস আগে এই মামলার তদন্তভার এনআইএ-র হাতে দেয়। কিন্তু সিআইডি এখনও এনআইএ-র হাতে কিছু নথি তুলে দেয়নি বলে আদালতে জানানো হয়। একইসঙ্গে নিহতদের পরিবারের জন্য ক্ষতিপূরণ সংক্রান্ত নির্দেশও রাজ্য পালন করেনি বলে অভিযোগ আসে। এরপরই রাজ্যের মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব ও এডিজি সিআইডির বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার দায়ে রুল ইস্যু করে হাইকোর্ট। ৫ এপ্রিল এই মামলার পরবর্তী শুনানি। তবে তার আগেই হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের শরনাপন্ন হল রাজ্য।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *