বোলপুর হাসপাতালে নির্যাতিতার সাথে দেখা করলেন জেলাশাসক

বোলপুর : বোলপুর মহকুমা হাসপাতালে এসে নির্যাতিতার সঙ্গে কথা বললেন বীরভূম জেলা শাসক বিধান রায়৷ নির্যাতিতা নাবালিকার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হল।মঙ্গলবার দুপুরে বোলপুর মহকুমা হাসপাতালে আসেন বীরভূম জেলা শাসক বিধান রায়। সঙ্গে ছিলেন নির্যাতিতা নাবালিকার মেডিক্যাল টিম। প্রায় এক ঘন্টা নির্যাতিতা ও তার পরিজনের সঙ্গে কথা বলেন জেলা শাসক।
জেলা শাসক জানান, নির্যাতিতা নাবালিকার মানসিক আতঙ্ক এখনও কাটেনি। তার আরও ভালো চিকিৎসা পরিষেবা দরকার৷ সেই ব্যবস্থাই করা হচ্ছে৷ এরপরেই নির্যাতিতাকে কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

প্রসঙ্গত, দেনার দায়ে নিজের মেয়েকে তৃণমূল নেতার হাতে তুলে দেয় বাবা৷ দিনের পর দিন ওই নাবালিকাকে ধর্ষণ করে সিয়ান-মুলুক গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল সদস্য দীপ্তিমান ঘোষ ও তার দুই সাগরেদ শুভেন্দু ঘোষ, সনৎ মাড্ডি। এই ঘটনায় এই তিন জন সহ নাবালিকার বাবাকে ইতিমধ্যেই গ্রেপ্তার করেছে বোলপুর থানার পুলিশ। তাদের ১০ দিন পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে বিচারক।

বীরভূম জেলা শাসক বিধান রায় বলেন, “মেয়েটির আরও ভালো চিকিৎসা দরকার। আমরা সেই ব্যবস্থা করছি৷ ঘটনার তদন্ত চলছে৷ দোষীদের উপযুক্ত ব্যবস্থা হবে। আমরা উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে রিপোর্ট দেব।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × three =