পাকিস্তানের ৪টি-সহ মোট ২২টি ইউটিউব চ্যানেল ব্লক করল কেন্দ্র

ভারতের জাতীয় সুরক্ষা, বৈদেশিক সম্পর্ক এবং সরকার সম্পর্কে ভুয়ো তথ্য ছড়ানোর অভিযোগে মোট ২২টি ইউটিউব চ্যানেলকে (Youtube Channel) ব্লক করে দিল কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক (Information and Broadcasting Ministry)। ব্লক করা চ্যানেলগুলির মধ্যে চারটি চ্যানেল পাকিস্তান থেকে নিয়ন্ত্রিত হয়। বাকিগুলি এ দেশেরই। মঙ্গলবার এই সংক্রান্ত বিবৃতি প্রকাশ করে এ কথা জানায় কেন্দ্র। উল্লেখ্য এই প্রথম ভারত থেকে নিয়ন্ত্রিত কোনও ইউটিউব চ্যানেলকে বন্ধ করে দিল সরকার।

শুধু ২২টি ইউটিউব চ্যানেলই নয়, তিনটি টুইটার হ্যান্ডল, একটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট এবং একটি সংবাদের ওয়েবসাইটকেও ব্লক করা হয়েছে বলে সরকার সূত্রে জানানো হয়েছে। সরকারি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘একাধিক ইউটিউব চ্যানেলে ভারতের সশস্ত্র বাহিনী, জম্মু-কাশ্মীর-সহ বিভিন্ন বিষয়ে ভুয়ো খবর পরিবেশন করা হত। সেই চ্যানেলগুলোকে বন্ধ করা হয়েছে। পাশাপাশি সরাসরি পাকিস্তান থেকে একাধিক নেটমাধ্যম অ্যাকাউন্টে ধারাবাহিক ভাবে ভারত-বিরোধী খবর প্রকাশিত হচ্ছিল, সেগুলিও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।’

সরকার সূত্রে খবর, এই ইউটিউব চ্যানেলগুলিতে এমন ভাবে সংবাদ পরিবেশন করা হত যে, এক ঝলকে দেখে মনে হতে পারে, সেগুলি জনপ্রিয় কোনও ভারতীয় চ্যানেলের ইউটিউব সংস্করণ। আসলে, সে সবই ভুয়ো। এ ভাবেই অত্যন্ত পরিকল্পিত ভাবে ভারত-বিরোধী বিষয় ছড়িয়ে দেওয়ার কাজ চলছিল।

বছরের শুরুতেই ৩৫টি ইউটিউব চ্যানেল এবং দু’টি ওয়েবসাইট ব্লক করেছিল তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক। ডিজিটাল মিডিয়ার মাধ্যমে ভারতের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছিল বলে অভিযোগ। তারপর আবার এপ্রিল মাসেই ২২টি ইউটিউব চ্যানেল ব্লক করল ভারত সরকার। এই নিয়ে গত বছরের ডিসেম্বর মাস থেকে একই অভিযোগে মোট ৭৮টি ইউটিউব চ্যানেল বন্ধ করে দিল কেন্দ্রীয় সরকার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

12 + 19 =