বন্দে ভারতের পর ছুটবে বুলেট ট্রেন, কাজ এগোচ্ছে দ্রুত, জানালেন রেলমন্ত্রী

ইতিমধ্যেই ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে সেমি হাইস্পিড ট্রেন ‘ব¨ে ভারত’। এবার ২০২৪ সালের লোকসভা ভোটের আগে পূর্ব ঘোষিত বুলেট ট্রেনের কথা উস্কে দিলেন রেল মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব। ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে মুম্বই-আমেদাবাদ ৫০৮ কিমি দীর্ঘ পথে বুলেট ট্রেন চালানোর স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তারপর কেটে গিয়েছে ৭ বছর। লোকসভা ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষিত হয়েছে।
সম্প্রতি এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রেলমন্ত্রী বৈষ্ণব জানিয়েছেন, ‘ভারতের বুলেট ট্রেন প্রকল্পটি খুব ভালোভাবে এগোচ্ছে। খুব শীঘ্রই মুম্বই থেকে আমদাবাদে প্রথম করিডরটি চালানো হবে। এর ফলে অর্থনৈতিক উন্নতিও ঘটবে।’ রেল মন্ত্রক সূত্রের খবর, পরীক্ষামূলকভাবে প্রথম বুলেট ট্রেন চলবে গুজরাটের সুরাট এবং বিলিমোরার মধ্যে। তারপরে ধীরে ধীরে অন্যান্য জায়াগায় ট্রায়াল রান হবে। মুম্বই ও আহমেদাবাদের মধ্যে ৫০৮ কিলোমিটার পথ পাড়ি দেবে বুলেট ট্রেন। তার মধ্যে ৪৪৮ কিলোমিটার পথ ফ্লাইওভার থাকবে। যাত্রাপথে থাকবে সুড়ঙ্গ এবং সেতুও। এই প্রকল্পটি শেষ হওয়ার কথা ছিল ২০২৩ সালেই। কিন্তু, নানা প্রতিবন্ধকতায় সেই প্রকল্প অনেকটাই পিছিয়ে গিয়েছে। প্রকল্পের সম্ভাব্য ডেডলাইন ২০২৬ সাল। সেই রেলপথ তৈরির ভিডিও প্রকাশ করেছে রেলমন্ত্রক মুম্বই থেকে আহমেদাবাদের মধ্যেকার এই বুলেট ট্রেন প্রকল্পের কাজ হওয়ার কথা জাপান থেকে ৮০ শতাংশ ঋণ নিয়ে। সেদেশের সরকারের প্রতিশ্রুতিমতো মাত্র ০.১ শতাংশ সুদ এবং ১৫ বছরের মোরাটরিয়ামে এই ঋণ পাওয়ার কথা ভারতের। এই প্রকল্পটি সম্পন্ন হওয়ার কথা সম্পূর্ণ জাপানি প্রযুক্তিতে এবং জাপানি সংস্থাগুলির মাধ্যমে। আধিকারিকরা জানাচ্ছেন, ট্রায়াল রানে ৩৫০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা গতিবেগে চলবে বুলেট ট্রেন। যা বিমানের টেক-অফ গতির সঙ্গে তুলনীয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × one =