বিজেপি নেতার গাড়িতে গুলিকান্ড, নির্বাচনী পুলিশ পর্যবেক্ষকের কাছে অভিযোগ জানাল বিজেপি

দুর্গাপুর : সোমবার, বিজেপি নেতা জিতেন চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতে গেলেন বিজেপির জেলা সহসভাপতি চন্দ্রশেখর বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন সকালে বিজেপি নেতার বাড়িতে গিয়ে ঘটনা প্রসঙ্গে খোঁজ খবর নিলেন তিনি। এদিনই বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারির নির্দেশে বিজেপির জেলা সহসভাপতি চন্দ্রশেখর বন্দ্যোপাধ্যায়, রাজ্য বিজেপি সদস্য কৃষেন্দু মুখোপাধ্যায়, রাজ্য নেতা জিতেন্দ্র তিওয়ারি নির্বাচনী পুলিশ পর্যবেক্ষকের সঙ্গে দেখা করেন। দলীয় নেতা-কে লক্ষ্যে করে গুলিকান্ডের অভিযোগ জানান তাঁরা।

প্রসঙ্গত, রবিবার রাতে পান্ডবেশ্বরে দলীয় কর্মীদের সঙ্গে মিটিং সেরে ফিরছিলেন নিজের চার চাকা গাড়িতে ওই বিজেপি নেতা। কুমারডিহি ঢুকতেই ঢাল রাস্তায় গাড়িটি একটু ধীর গতিতে যাচ্ছিল, তক্ষণই বাইকে সওয়ার দু’জন দুষ্কৃতি তাকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় বলে জানান বিজেপি নেতা জিতেন চট্টোপাধ্যায়। লক্ষ্য ভ্রষ্ট হয়ে প্রাণে বাঁচেন বিজেপি নেতা। চালক আসনের কাঁচ ফুটো করে গুলি পার হয়েছে বলে জানান বিজেপি নেতা জিতেন চট্টোপাধ্যায়। তবে, বিজেপি-র দলীয় সুত্রে জানা গিয়েছে, লক্ষ্য ছিল বিজেপির বর্ষীয়ান নেতা নির্মল কর্মকার-কে গুলি করার। তাঁর ছায়াসঙ্গী হিসেবে থাকতেন জিতেন চট্টোপাধ্যায় বলে দলীয় সুত্রের খবর।

সুত্রের মতে, নির্মল কর্মকার প্রায়শই জিতেন চট্টোপাধ্যায়ের গাড়িতে একসাথে সফর করতেন। বিশেষ সুত্রে জানা গিয়েছে, আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে নির্মল কর্মকার ও জিতেন চট্টোপাধ্যায় প্রার্থী হিসেবে নিজেদের দাবিদার জানিয়েছিলেন দিল্লী-তে। সুত্রের মতে, এই দুই নেতা কোলিয়ারি অঞ্চলে দলীয় কাজ করার জন্য তাদের ওপর আক্রমণের আশঙ্কায় বিজেপি কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে তাদের সুরক্ষার জন্য নিরাপত্তারক্ষী চেয়েছিলেন।

বিজেপির জেলা সহসভাপতি চন্দ্রশেখর বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, নির্বাচনের দিন পান্ডবেশ্বরে বুথে বিজেপি যাতে কর্মী দিতে না পারে তাঁর জন্যই এই হামলা। শাসকদল ভাবছেন এতে বিজেপি নেতা সহ কর্মীরা ভয় পেয়ে যাবেন। চন্দ্রশেখর বলেন, বিরোধী দলনেতার নির্দেশে থানায় এবং নির্বাচনী পুলিশ পর্যবেক্ষকের কাছে সমস্ত বিষয় জানানো হয়েছে এবং দ্রুত ব্যাবস্থা গ্রহণ করার আবেদন করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, নির্বাচনের দিন শেষ ভোট পর্যন্ত বিজেপি কর্মীরা বুথে থাকবে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

18 − 14 =