ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ব্যাটিং ব্যর্থতাই ডোবাল স্মৃতি-হরমনদের, বল হাতে ফের নজির ঝুলনের

ওয়েলিংটন: মেয়েদের বিশ্বকাপের এক একটা ম্যাচে আলাদা ভারতকে  দেখা যাচ্ছে। বে ওভালে আজ মুখোমুখি হয়েছিল গতবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ও রানার্সরা। এ বারের বিশ্বকাপে এর আগের তিনটে ম্যাচের দুটোতে জিতেছিলেন ঝুলনরা। অন্যদিকে হারের হ্যাটট্রিকের পর হেদার নাইটদের জন্য আজকের ম্যাচটা ছিল কার্যত ডু অর ডাই ম্যাচ। আর সেই ম্যাচেই মিতালিব্রিগেডকে ধরাশায়ী করে দিলেন নাইটরা। আজ ইংল্যান্ডের কাছে সস্তায় হেরে বসলেন হরমনপ্রীতরা। ফলে লিগ টেবলে ওপরের দিকে ওঠা হল না টিম ইন্ডিয়ার। চার ম্যাচের ২টিতে জয় ও ২টিতে হারের পর ৪ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবলের তিন নম্বরেই রইলেন ঝুলনরা।

বে ওভালে টসে জিতে শুরুতে মিতালিদের ব্যাটিং করতে পাঠান নাইট। শুরু থেকেই পরপর উইকেট হারাতে থাকে উইমেন্স ই ব্লুরা। ভারতীয় ওপেনার যস্তিকা ভাটিয়া স্মৃতি মান্ধানার সঙ্গে বড় জুটি গড়তে ব্যর্থ হন। মাত্র ৮ রান করে সাজঘরে ফেরেন তিনি। তিন নম্বরে নেমে ক্যাপ্টেন মিতালি রাজ চরম ব্যর্থ হলেন। করে গেলেন মাত্র ১ রান। চারে নামা দীপ্তি শর্মার শূন্যে ফিরলেন প্যাভিলিয়নে। টিম ইন্ডিয়ার ছন্নছাড়া ব্যাটিং দেখে চেপে বসেছিলেন চার্লি ডেনরা। মিতালির ডেপুটি হরমনপ্রীত কৌরের সঙ্গে জুটি বাঁধার একটা চেষ্টা করেছিলেন স্মৃতি। হ্যারি-স্মৃতি জুটিতে ৩৩ রান যোগ করেন। এর পর ১৪ রানের মাথায় চার্লির শিকার হন হরমনপ্রীত। দীপ্তির মতোই আজ কোনও রান না করেই মাঠ ছাড়েন স্নেহ রানা। এর পর বাংলার রিচার সঙ্গে জুটিতে ১০ রান তোলেন স্মৃতি। এর পর স্মৃতিও আউট হন (৩৫ রান)। পূজা বস্ত্রকার ও রিচা মিলে একটু দলকে টানার চেষ্টা করেন।

সেখানেও বাদ সাধেন চার্লি। ৬ রান করে চার্লির শিকার হন পূজা। এর পর বাংলার দুই প্লেয়ার ঝুলন ও রিচা মিলে দলকে টেনেটুনে ১০০-র গণ্ডি পের করান। কার্যত শেষ বেলায় ঝুলন-রিচার ব্যাটে ভর করেই টিম ইন্ডিয়া নাইটদের ১৩৪ রানের টার্গেট দেয়। বল হাতে আরও এক রেকর্ড করার দিন ব্যাট ঝুলন করে যান গুরুত্বপূর্ণ ২০ রান। এবং দল যখন কঠিন পরিস্থিতিতে তখন রিচার ব্যাট থেকে এসেছে ৩৩ রান। ইংল্যান্ডের হয়ে চার্লি ডেন নিয়েছেন ৪ খানা উইকেট। অন্যা শ্রুবসোলে পেয়েছেন ২টি উইকেট। সোফি একলিস্টোন এবং কেট ক্রসের ঝুসিতে এসেছে ১টি করে উইকেট। এ ছাড়া দীপ্তি শর্মা এবং রিচা ঘোষ রান আউট হয়েছেন।

তবে ৪ উইকেটে বিশ্বকাপে ভারতের চতুর্থ ম্যাচে হারের দিনও একখানা রেকর্ড গড়লেন বাংলার ঝুলন। চলতি বিশ্বকাপে তৃতীয় ম্যাচে ক্যারিবিয়ানদের হারানোর দিন মেয়েদের ওয়ান ডে বিশ্বকাপে সব থেকে বেশি উইকেট নেওয়া বোলার হন ঝুলন। প্রাক্তন অজি বোলার লিন ফুলস্টনকে টপকে যান তিনি। আর আজ, ইংল্যান্ডের ওপেনার টমি বিউমন্টের উইকেট তুলে নিয়ে মেয়েদের ওয়ান ডে ক্রিকেটে প্রথম এবং একমাত্র বোলার হিসেবে ২৫০টি উইকেট নেওয়ার নজির গড়লেন ঝুলন।

ফের এক বার বিশ্বকাপের মঞ্চে টিম ইন্ডিয়ার ধারাবাহিকতার অভাব ফুটে উঠল। যার ফায়দাটা লুটে নিলেন নাইটরা। তবে অল্প রান তাড়া করতে নেমে কিন্তু শুরুতেই ধাক্কা খায় ইংল্যান্ড। ৪ রানের মধ্যে দুই ওপেনারকে প্যাভিলিয়নে পাঠান ঝুলন গোস্বামী ও মেঘনা সিং। এরপর ম্যাচের হাল ধরেন হেদার নাইট ও ন্যাট সাইভাররা। ৬৫ রানের পার্টনারশিপ গড়েন নাইট-ন্যাট। তবে ন্যাটের হাফসেঞ্চুরি শেষ মেশ রুখে দেন পূজা বস্ত্রকার। ৪৫ রানের মাথায় তিনি সাজঘরে ফেরেন। কিন্তু টার্গেট যে ছিল মাত্র ১৩৪। তাতে বেশি বেগ পেতে হয়নি ইংল্যান্ডকে। ফলে ন্যাট ফিরে গেলেও নাইট ক্রিজে অটল রইলেন এবং দলকে ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়লেন। ৫৩ রানে অপরাজিত থেকে দলকে এ বারের বিশ্বকাপে প্রথম জেতালেন ক্যাপ্টেন নাইট। মেঘনার তিন উইকেট, ঝুলন-পূজা-রাজেশ্বরীর একটি করে উইকেট বাঁচাতে পারল না মিতালিদের। ৩১.২ ওভারে ৬ উইকেটের বিনিময়ে ১৩৬ রান তুলে ফেলে ইংল্যান্ড।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × 4 =