মহুয়া-কাণ্ডে লোকসভার সচিবালয়কে নোটিস সুপ্রিম কোর্টের

ঘুষ নিয়ে প্রশ্ন মামলায় আপাতত সুপ্রিম কোর্টে স্বস্তি মিলল না মহুয়া মৈত্রর । সাংসদ পদ খারিজের সিদ্ধান্তের উপর এখনই স্থগিতাদেশের আবেদন মানল না সুপ্রিম কোর্ট। এ বিষয়ে বিস্তারিত শুনানির পরই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে সূত্রের খবর। পরবর্তী শুনানি মার্চের তৃতীয় সপ্তাহে। সংসদের নেওয়া সিদ্ধান্তের উপর আদৌ বিচারবিভাগের হস্তক্ষেপের কোনও এক্তিয়ার রয়েছে কিনা তা নিয়ে এদিন প্রশ্ন তুলতে দেখা যায় সলিসিটর জেনারেলকে। এক্তিয়ারের বিষয় খতিয়ে দেখা হবে বলেও জানায় সুপ্রিম কোর্ট।

বুধবার শীর্ষ আদালতের এই নির্দেশের কথা এক্স হ্যান্ডেলে পোস্ট করেও জানিয়েছেন মহুয়া। এইদন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি সঞ্জীব খান্না এবং বিচারপতি দীপঙ্কর দত্তের বেঞ্চে এই মামলার শুনানি হয়। মহুয়ার পক্ষে তাঁর আইনজীবী অভিষেক মনু সিংভি আদালতে জানান, একটি বিষয়ের জন্য সাংসদ পদ খারিজ করা হয়েছে তাঁর মক্কেলের। তাঁর বিরুদ্ধে লগইন সংক্রান্ত তথ্যাবলি বাইরের লোকের সঙ্গে শেয়ার করার অভিযোগ রয়েছে। কিন্তু তা নিয়ে পাল্টা যুক্তি দেওয়ার অনুমতিই দেওয়া হয়নি মহুয়াকে।

এদিন কেন্দ্রের তরফে সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা  প্রশ্ন তোলেন গোটা বিষয়টিতে বিচারবিভাগের হস্তক্ষেপের এক্তিয়ার নিয়ে। তুষার বলেন, ‘দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয় যদি বাইরে যায় এবং লোকসভার এথিক্স কমিটি তা খতিয়ে দেখে, বিচারবিভাগ কি তাতে নাক গলাতে পারে?’  শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, বিষয়টি বিবেচনা করে দেখা হবে। সব দিক বিবেচনা করে আগামী ১১ মার্চ মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে এবং লোকসভার সচিবালয়কে নোটিস দিয়ে বক্তব্য জানাতে বলা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *