গঙ্গাসাগর মেলাকে দূষণমুক্ত করার জন্য নেওয়া হল বিশেষ প্রস্তুতি

গঙ্গাসাগর: বলতে বলতে একদম কাছেই গঙ্গাসাগর মেলা। গত বছরের তুলনায় এবছর যাত্রীর সংখ্যা বেশ কয়েক লক্ষ গুণ বাড়বে বলে আশা প্রকাশ করেছেন গঙ্গাসাগর মেলা কমিটি।

শুক্রবার গঙ্গাসাগর প্রশাসনিক ভবনে এক আলোচনা চক্রের আয়োজন করা হয় সেই আলোচনা চক্রে উপস্থিত ছিলেন সুন্দরবন উন্নয়ন মন্ত্রী বঙ্কিমচন্দ্র হাজরা। ছিলেন গঙ্গাসাগর ও বকখালি উন্নয়ন পর্ষদের চেয়ারম্যান তথা দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা পরিষদের সহকারী সভাধিপতি শ্রীমন্ত কুমার মালি সহ অন্যান্য প্রশাসনিক আধিকারিক।

মূলত কিভাবে গঙ্গাসাগর মেলাকে দূষণমুক্ত করা যায় এবং গঙ্গা দূষণ রোধ করা যায় তার উপরেই বিশেষভাবে জোর দেওয়া হয়েছে।

তাই এবছর সাত হাজারের বেশি স্থায়ী এবং অস্থায়ী শৌচাগার রাখা হচ্ছে। পুণ্যার্থীদের জন্য সমগ্র মেলাজুড়ে বিলি করা হবে জলের পাউচ। জলের পাউচ তৈরির জন্য থাকবে চারটি মেশিন। সমগ্র মেলাজুড়ে থাকবে ৩১৫ টি জলের ট্যাঙ্ক। দূর দূরান্ত থেকে আসা পুণ্যার্থীরা যাতে কোনো অসুবিধায় না পড়ে তার জন্য থাকবে বিশেষ পর্যবেক্ষণ দল। যাতে করে প্লাস্টিক ও নানা রকম বর্জ্য পদার্থ যত্রতত্র মেলা প্রাঙ্গণে না ফেলা হয় তার জন্য থাকবে সাড়ে চার হাজার ডাস্টবিন। পুণ্যার্থীদের গঙ্গাদূষণ সম্পর্কে সচেতনতার জন্য মাইকিং প্রচার করা হবে। গত বছরের থেকে আরো বেশি সিসিটিভি ক্যামেরায় মেলাকে মুড়ে ফেলা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *