পশ্চিমবঙ্গের নতুন ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর সৌরভ, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

এদিন বিশ্ব বঙ্গ বাণিজ্য সম্মেলনের উদ্বোধনী মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক বাংলার ঘরের ছেলে সৌরভ গাঙ্গুলি। মুখ্যমন্ত্রীর স্পেন সফরের সময়েই শিল্পপতি হিসাবে তাঁর আত্মপ্রকাশ দেখেছে গোটা দেশ। এদিন থেকে তাঁর নতুন পরিচয় হল তাঁর। রাজ্যের নতুন ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হলেন তিনি। একথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী নিজেই।

সেখানে উপস্থিত সৌরভের হাতে সঙ্গে সঙ্গেই একটি চিঠি তুলে দেন মমতা। নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে, সরকারি ভাবে নিয়োগপত্র দেবেন মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী। এটাও জানা গিয়েছে যে, সৌরভ এই দায়িত্ব পালনের জন্য রাজ্যের কোনও অর্থ নেবেন না। রাজ্যে বাম জমানায় কোনও ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর ছিলেন না।

সৌরভ বলেন, ‘দিদি সমস্ত ভালো অনুষ্ঠানেই আমাকে ডাকেন। ওঁর ভালোবাসায় আমি অভিভূত। কেন আমায় ডাকে মাঝে মাঝে বুঝি না তবু এই সম্মানে আমি আপ্লুত। এত দায়িত্ব, এত ব্যস্ততা সত্ত্বেও আমি মেসেজ করলেও এক মিনিটের মধ্যে রিপ্লাই পাই। আমাকে টিভি তে হোক বা যেখানে হোক এক ঝলক দেখলেও মেসেজ করে জিজ্ঞেস করেন ঠিক মতো খাচ্ছি কি না। আর আমি উত্তর দিই, দিদি আমি সবসময়ই খাই।’

সৌরভ বোঝাতে চান ব্যক্তিগত স্তরে মমতা এতটাই যত্নশীল। তা ছাড়া বিসিসিআই-এর দায়িত্বভার কাঁধের উপর না থাকায় সৌরভ হয়তো কিছু বাড়তি সময়ও বার করতে পারবেন এখন। রাজ্যের শিল্প নিয়ে সৌরভ এ-ও বলেন, ‘রাজ্যে সত্যিই বিনিয়োগের পরিবেশ তৈরি হয়েছে। আপনারা আসুন।’

তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পরেই এই বিষয়ে প্রথম উদ্যোগী হন মমতা। প্রথম বার অভিনেতা শাহরুখ খানকে রাজ্যের দূত বানান তিনি। এ বার নিয়োগ করলেন সৌরভকে। তবে শাহরুখকে সরিয়ে সৌরভকে নিয়োগ করলেন কি না সে ব্যাপারে এখনও পর্যন্ত সরকারি ভাবে কিছু জানা যায়নি। মমতাও এ দিন শাহরুখ প্রসঙ্গ উত্থাপন করেননি। এর আগে তৃণমূল সাংসদ তথা অভিনেতা দেবকে রাজ্যের পর্যটন অ্যাম্বাসাডর ঘোষণা করেছিলেন মমতা। তবে মঙ্গলবার মমতা যা বলেন তাতে রাজ্যের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হিসাবেই তিনি প্রাক্তন ভারত অধিনায়ককে বাছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *