কোহলির প্রতি ‘কৃতজ্ঞ’ অধিনায়ক রোহিত, আগামী দিনেও আশা ‘বিরাট’ পারফরম্যান্সের

 

মোহালি: আর কয়েক ঘণ্টার অপেক্ষা। তারপরেই ইতিহাস স্পর্শ করবেন বিরাট কোহলি। আগামিকাল ভারত-শ্রীলঙ্কা প্রথম টেস্টে  মুখোমুখি। খেলা মোহালির পিসিএ স্টেডিয়ামে। ভারতের প্রাক্তন ক্যাপ্টেন কোহলির দিকেই এখন ফোকাস। এই টেস্টই হতে চলেছে কোহলির কেরিয়ারের ঐতিহাসিক ১০০ নম্বর টেস্ট। মোহালিতে মাইলস্টোন স্থাপনের আগে কোহলির বিরাট ‘ঋণ’ স্বীকার করে নিলেন রোহিত শর্মা।

শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ভারতীয় দলের টেস্ট ক্যাপ্টেন হিসাবে পথ চলা শুরু করছেন রোহিত। বৃহস্পতিবার প্রথামাফিক প্রাক ম্যাচ সাংবাদিক বৈঠকে হাজির ছিলেন রোহিত। ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে রোহিত ভূয়সী প্রশংসা করেন প্রাক্তন ক্যাপ্টেনের। ‘হিটম্যান’ জানালেন যে,তাঁর দেখা কোহলির সেরা টেস্ট শতরান কোনটি।

এদিন রোহিত বলেন, “কোহলির লম্বা ও অসাধারণ ক্রিকেটীয় যাত্রা করে এসেছে। টেস্ট ফরম্যাটেও দারুণ করেছে ও। কোহলি অনেক পরিবর্তন এনেছে। তার জন্যই এখন দল এগিয়ে যাচ্ছে। কোহলি এমনটা ভবিষ্যতেও করবে। আমরা অবশ্যই চাইব কোহলির শততম টেস্টকে বিশেষ ভাবে স্মরণীয় করে রাখার। আশা করি ভাল পাঁচ দিনের ক্রিকেট খেলতে পারব। দল হিসাবে আমরা কোহলির নেতৃত্বে অস্ট্রেলিয়ায় ২০১৮ সালে টেস্ট সিরিজ জিতি। আমি ব্যক্তিগত ভাবে ২০১৩ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় কোহলির টেস্ট সেঞ্চুরির কথা বলব। অত্যন্ত চ্যালেঞ্জিং বাউন্সি পিচ ছিল। সেবার দক্ষিণ আফ্রিকায় অনেকেই প্রথম খেলতে গিয়েছিল। মর্কেল-স্টেইনদের খেলা কখনই সহজ নয়। তবে বিরাট যেভাবে ব্যাট করেছিল প্রথম ও দ্বিতীয় ইনিংসে, তা আমার দেখা ওর সেরা নক। এখনও মনে আছে। আমি পার্থের ইনিংসের থেকেও এগিয়ে রাখব।”

সাদা বলের ক্রিকেটে কোহলির ক্যাপ্টেনসিতে ভারত আইসিসি-র কোনও ট্রফি জিততে পারেনি ঠিকই, কিন্তু লাল বলের ক্রিকেটে গোটা বিশ্বে শাসন করেছিল কোহলির টিম। সেই কথা ভুলে যাননি সতীর্থ রোহিত। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “আমি জয়ের জন্য ভাবব। দলের ঠিক প্লেয়ারদের নিয়ে ঠিক কাজটা করতে হবে। টেস্ট দল হিসাবে এই মুহূর্তে আমরা দারুণ জায়গায় আছি। এই জায়গায় আসার কৃতিত্ব বিরাটের। ও টেস্ট দলকে অসাধারণ ভাবে এগিয়ে নিয়ে গিয়েছে। ও যেখানে ছেড়েছে সেখান থেকেই আমি এগিয়ে নিয়ে যাব। আমরা বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ টেবিলের মাঝ পথে আছি। এখানে দাঁড়িয়ে ভুল করার কিছু নেই। প্রতি ম্যাচে উন্নতি করে নিজেদের ভুলভ্রান্তি শুধরে একটা বেঞ্চমার্ক তৈরি করতে চাই। কোনও দলই পারফেক্ট নই।”

কোহলি শুধু ১০০ টেস্টই খেলতে নামছেন না। আরও এক বিরাট টেস্ট মাইলস্টোনের সামনে দাঁড়িয়ে তিনি। কোহলির ব্যাট থেকে আর ৩৮ রান আসলেই তিনি লাল বলের ক্রিকেটে ৮০০০ রান স্পর্শ করে ফেলবেন। কোহলি এখনও পর্যন্ত ৯৯টি টেস্টে ৭৯৬২ রান করেছেন ৫০.৩৯-এর গড়ে। করেছেন ২৭টি সেঞ্চুরি ও ২৮টি হাফ-সেঞ্চুরি। নেতৃত্ব ছেড়ে দেওয়ার পর এই প্রথমবার টেস্ট ক্রিকেট খেলতে নামবেন তিনি।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × five =