শেষ ওভারে এবার আর পারলেন না ধোনি, চেন্নাইকে হারিয়ে ফের জয়ের সরণিতে পঞ্জাব কিংস

রোহিত শর্মার মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকে হারানোর পর ধোনি, রবীন্দ্র জাদেজার চেন্নাইয়ের আত্মবিশ্বাস অনেকটাই বেড়ে গিয়েছিল। সোমবার পঞ্জাবের বড় রান তাড়া করতে নেমে শুরুটা অবশ্য ভাল হয়নি সিএসকের। রবিন উথাপ্পা (১), স্যান্টনার (৯) ফিরে গেলেন। তবে অন্যদিকে ভরসা দিচ্ছিলেন ঋতুরাজ গায়কোয়াড়। রাবাডার বলে ঋতুরাজ (৩০) করে ফিরে গেলেও চেন্নাইকে ম্যাচ থেকে হারিয়ে যেতে দেননি অম্বতি রাইডু।

শিবম দুবে (৮) দাঁড়াতে না পারলেও, একাই রান তাড়া করছিলেন রাইডু। ১৬ তম ওভারে সন্দীপ শর্মাকে পিটিয়ে ২৩ রান নিলেন। চলতি আইপিএলে প্রথম সাক্ষাতে পঞ্জাব কিংসের বিরুদ্ধে রান তাড়া করতে গিয়ে পুরো ২০ ওভারও টেকেনি চেন্নাই সুপার কিংস। হারতে হয়েছিল বড় ব্যবধানে। আজ ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে চেন্নাই সুপার কিংসের সামনে জয়ের জন্য ১৮৮ রানের লক্ষ্যমাত্রা রেখেছিল পঞ্জাব কিংস।

শিখর ধাওয়ান চলতি আইপিএলে দ্বিতীয় অর্ধশতরান হাঁকিয়ে অপরাজিত রইলেন ৮৮ রানে। দিল্লি ক্যাপিটালস ম্যাচে ১১৫ রানে অল আউট হয়ে ৯ উইকেটে পরাস্ত হওয়ার পর আজ চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে দলে তিনটি পরিবর্তন করে পাঞ্জাব কিংস। শাহরুখ খানকে বসিয়ে ফেরানো হয় ভানুকা রাজাপক্ষকে। সেই আস্থার মর্যাদা দিলেন শ্রীলঙ্কার ব্যাটার।

শিখর ধাওয়ানের সঙ্গে তাঁর দুরন্ত পার্টনারশিপই বড় রান তুলতে সাহায্য করল ময়াঙ্ক আগরওয়ালের দলকে। শিখরের ব্যাটিং গড় ৪৩.১৪, স্ট্রাইক রেট ১৩২.৪৫। মেরেছেন সবমিলিয়ে ৩০টি চার ও ৮টি ছয়। চলতি আইপিএলে শিখর দ্বিতীয় তথা আইপিএল কেরিয়ারের ৪৬তম অর্ধশতরানটি এদিন পূর্ণ করেন। লিভিংস্টোন দ্রুত ১৯ রান করেন। তবে তাকে কেন পরে নামানো হয়েছিল পরিষ্কার নয়। শেষ তিন ওভারে চেন্নাইয়ের প্রয়োজন ছিল ৪১ রান। রাবাডা দুর্দান্ত খেলা রাইডুকে (৭৮) বোল্ড করে দিলেন। মাঠে এলেন ধোনি। শেষ দুই ওভারে প্রয়োজন ছিল ৩৫। ক্রিজে সেই পুরনো এবং বহু যুদ্ধের দুই নায়ক ধোনি এবং জাদেজা। বল করতে এলেন আর্শদীপ। শেষ ওভারে প্রয়োজন ছিল ২৬। ঋষি ধাওয়ান প্রথম বলেই খেলেন ছক্কা।

দ্বিতীয় বলে ওয়াইড। তিন নম্বর ডট বল। চতুর্থ বলে ফিরে গেলেন ধোনি (১২)। জনি বেয়ারস্টো ক্যাচ ধরলেন। তখনই নির্ধারিত হয়ে গিয়েছিল ম্যাচের ভাগ্য। শেষ পর্যন্ত পঞ্জাব জিতল ১১ রানে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

7 + 8 =