গুজরাত উপকূলে আটক পাকিস্তানি নৌকো

ফের ভারতের জলসীমান্ত পেরিয়ে ঢুকল পাকিস্তানি (Pakistan) নৌকো। আর সেখান থেকে উদ্ধার হল শয়ে শয়ে মাদকের (Narcotics) প্যাকেট। তবে ভারতীয় উপকূলরক্ষী বাহিনী (Indian Coast Guard) এবং এটিএসের তাড়া খেয়ে সেসব সমুদ্রের জলে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। পরে জল থেকে সেসব তুলে দেখা যায়, কোটি কোটি টাকার মাদক ছিল নৌকোটিতে। গ্রেপ্তার হয়েছে ৯ জন। কী উদ্দেশে জলপথে পাকিস্তান থেকে মাদকবোঝাই নৌকা ভারতীয় জলসীমান্তে ঢুকেছিল, তা খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা।

সূত্রের খবর, ভারতীয় উপকূলরক্ষী বাহিনীর গুলিতে পাকিস্তানি নৌকোটির ২ জন জখম হয়েছে। এরপর জল থেকে প্যাকেটগুলি উদ্ধার করে দেখা যায়, মাদকদ্রব্যে পরিপূর্ণ সেসব। যার বাজারমূল্য কয়েকশো কোটি টাকা। কী উদ্দেশে পাক নৌকোটি গুজরাত উপকূলে ঢুকেছিল, মাদক কোথায় পাচারের লক্ষ্য ছিল – এসব খতিয়ে দেখছে উপকূলরক্ষী বাহিনী ও এটিএস (ATS)।

গোপন সূত্রে উপকূলরক্ষী বাহিনী ও সন্ত্রাসদমন শাখার কাছে খবর ছিল, মাদকবোঝাই করে পাকিস্তানি নৌকা আসছে গুজরাতের (Gujarat) উপকূলে। সেইমতো সতর্ক ছিলেন আধিকারিকরা। রবিবার ‘আল হজ’ নামে একটি নৌকো প্রবেশ করেছে ভারতীয় জলসীমায়। জলযানটিকে আটক করার জন্য এগিয়ে যায় উপকূলরক্ষী বাহিনী। দূর থেকে তা দেখতে পেয়েই নৌকো থেকে ‘শয়ে ‘শয়ে প্যাকেট জলে ছুঁড়ে ফেলা হয়। এরপর নৌকোটি পালানোর চেষ্টা করে উপকূলরক্ষী (Indian Coast Guard) বাহিনীর তরফে গুলি ছুঁড়ে তাকে আটকানো হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seven + 10 =