গণ ‘সূর্য নমস্কার’-এ গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম নরেন্দ্র মোদির রাজ্য গুজরাতের

গণ ‘সূর্য নমস্কার’-এ গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম তুলল নরেন্দ্র মোদির রাজ্য গুজরাত। স্বাভাবিক ভাবেই রাজ্যের এই সাফল্যে উচ্ছ্বসিত হয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়  পোস্ট করে জানালেন সে কথাও। নিজের এক্স হ্যান্ডেলে একটি পোস্টে তিনি লেখেন, ‘গুজরাত একটি অসাধারণ কৃতিত্বের সাথে ২০২৪-কে স্বাগত জানিয়েছে। ১০৮টি ভেন্যুতে একসাথে সূর্য নমস্কার করার জন্য গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড স্থাপন করেছে। ১০৮ নম্বরটি ভারতীয় সংস্কৃতিতে একটি বিশেষ তাৎপর্য বহন করে।’সঙ্গে এও জানান,‘সূর্য নমস্কার’ ভারতীয় সংস্কৃতিতে বিশেষ তাৎপর্য বহন করে।

সোমবার অর্থাৎ নতুন বছরের প্রথম দিনে গুজরাতে গণ ‘সূর্য নমস্কার’-এর আয়োজন করা হয়েছিল। রাজ্যের ১০৮টি স্থানে এর আয়োজন করা হয়। ‘সূর্য নমস্কার’ করার জন্য হাজির ছিলেন ৪ হাজারের বেশি মানুষ। ভারতীয় সংস্কৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতেই এই অনুষ্ঠানের আয়োজন বলে গুজরাত সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের মতো ‘সূর্য নমস্কার’-এর মূল অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল মোধেরা সূর্য মন্দির এলাকাতেও। এখানে হাজির ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র প্যাটেল এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হর্ষ সাংভি। এছাড়াও হাজির ছিলেন শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে যোগব্যায়ামে উৎসাহী এবং প্রবীণ নাগরিকদের একাংশ। এদিকে মোধেরা সূর্য মন্দিরে ‘সূর্য নমস্কার’ অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের বিচারক স্বপ্লিল ডাঙ্গারিকর। তিনি বলেন, সূর্য মন্দির এলাকায় বহু মানুষের যোগদানে বিস্মিত। এর আগে বিশ্বে কোনও স্থানে ‘সূর্য নমস্কার’-এ এত মানুষের সমাগম হয়নি। সমস্ত তথ্য বিচার বিশ্লেষণ করার পর মোধেরার ‘সূর্য নমস্কার’ অনুষ্ঠানকে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নথিভুক্ত করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

সূর্য নমস্কার’-এ রেকর্ড তৈরি হওয়ায় উচ্ছ্বাসিত গুজরাতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হর্ষ সাংভি-ও। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টে তিনিও বিশ্ব রেকর্ড গড়ার কথা জানান। ১০৮ জায়গায় ‘সূর্য নমস্কার’ অনুষ্ঠান উপলক্ষে যে যোগের আয়োজন করা হয়েছিল, তা অভূতপূর্ব সাড়া মিলেছে বলেও দাবি করেছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *