ভয়াবহ বিস্ফোরণ নাগপুরের বিস্ফোরক তৈরির কারখানায়, ছিন্নভিন্ন অন্তত ৯ জন

ভয়াবহ বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল মহারাষ্ট্রের নাগপুরের বাজারগাঁও এলাকার ‘সোলার ইন্ডাস্ট্রিজ ইন্ডিয়া লিমিটেড’। রবিবার সকাল ন’টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটে বিস্ফোরক তৈরির সরকারি কারখানাটিতে। সূত্রের খবর, বিস্ফোরণে মৃত্যু হয়েছে অন্তত ন’জনের। তার মধ্যে ৩ জন মহিলা। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা।
ঘড়িতে সময় তখন সকাল ন’টা। সকালের শিফটের কাজ চলছে। আচমকাই বিকট শধে কেঁপে ওঠে ‘সোলার ইন্ডাস্ট্রিজ ইন্ডিয়া লিমিটেড’। আহত হয়েছেন আরও বেশ কয়েক জন। তাঁদের মধ্যে কয়েক জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। সকলকেই হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। মৃতদের পরিবারের জন্য ইতিমধ্যেই ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করা হয়েছে সরকারের তরফে। মহারাষ্ট্রের উপ মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবীশ টুইটারে জানিয়েছেন, মৃতদের পরিবার পিছু ৫ লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। মুখ্যমন্ত্রী একনাথ শিন্ডেও মৃত ও আহতদের পরিবারকে সমবেদনা জানানোর পাশাপাশি তাঁদের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।
পুলিশ সূত্রের খবর, কয়লা ফাটানোর বিস্ফোরক প্যাক করার কাজ চলছিল কারখানায়। সেই সময় দুর্ঘটনাটি ঘটে। বিস্ফোরণের অভিঘাতে ঘটনাস্থলেই ছিন্নভিন্ন হয়ে যায় কয়েকজনের শরীর। তাঁদের মধ্যে ছ’জনের মৃত্যু হয়। আহত হন আরও কয়েক জন। পরে হাসপাতালে আরও তিন জনের মৃত্যু হয়। জানা গিয়েছে, এই সরকারি কারখানায় বিভিন্ন ধরনের বিস্ফোরক তৈরি হত। যে বিস্ফোরক মূলত খনি এলাকা বা পাহাড় ফাটানোর কাজে ব্যবহার করা হয়। যদিও সকাল ৯টা নাগাদ দুর্ঘটনা ঘটলেও উদ্ধারকাজ শুরু হতে আরও এক ঘণ্টা পেরিয়ে যায় বলেই সূত্রের খবর। নাগপুরের ডিßিT্রক্ট কালেক্টর ভিপিন ইতঙ্কর জানান, কিছু বাধ্যতামূলক সুরক্ষা প্রোটোকলের জন্যই উদ্ধারকাজ শুরু করতে বাড়তি সময় লেগেছে। পেট্রোলিয়াম ও বিস্ফোরক বিশেষজ্ঞরা বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করছেন। শীঘ্রই তাঁর হাতে এ বিষয়ে রিপোর্ট আসবে।
এসপি (গ্রামীণ) এ পোদ্দার মৃত্যগুলি নিশ্চিত করেছেন। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে মনে করছেন তিনিও। ঘটনার খবর পেয়ে সেখানে পৌঁছন প্রাক্তন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী তথা কাটোলের বিধায়ক অনিল দেশমুখ।
পুলিশ সূত্রে খবর, এই ধরনের কারখানায় বিস্ফোরক বাক্সব¨ি করার জন্য প্রয়োজনীয় সমস্ত সতর্কতা বজায় রাখা হয়। কিন্তু রবিবার সকালে কী করে এমনটা হল, তা নিয়েই প্রশ্ন। সমস্ত নিয়ম ঠিকমতো মানা হয়েছিল কিনা তা এখনও অস্পষ্ট। গোটা ঘটনার বিস্তারিত তদন্ত করবে প্রতিরক্ষা বিভাগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *