মুম্বইয়ের ছেলের বিরুদ্ধে প্রথম জয়ের লক্ষ্যে নামছেন রোহিতরা

মহারাষ্ট্রের মাঠে হচ্ছে আইপিএল। কলকাতার একাধিক তারকা তাই হোম গ্রাউন্ডেই খেলছেন। প্রথম নামটা শ্রেয়স আইয়ার। মুম্বইয়ের ছেলে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে কখনও খেলেননি। আইপিএলে তাঁর দল, অতীতে দিল্লি ও বর্তমানে কলকাতা। নিজের রাজ্যের মাঠে তাই নিজের রাজ্যের দলের বিরুদ্ধে আরও একটা জয়ের লক্ষ্যে নিয়ে নামবেন শ্রেয়স। তাঁকে সঙ্গ দেবেন আর এক মুম্বইয়ের ছেলে অজিঙ্কে রাহানে। এ বারের লিগে এখনও জয়ের মুখে দেখেনি মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। প্রথম দুটো ম্যাচে হারের মুখে দেখতে হয়েছে। অন্য দিকে তিনটি ম্যাচ খেলে দুটি ম্যাচ জিতেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। শ্রেয়সের অধিনায়কত্ব যেমন বড় ফ্যাক্টর হয়ে উঠছে, তেমনই আগের ম্যাচে রাসেলের ব্যাট জ্বলে উঠেছে। যে ক্যারিবিয়ান ঝড়ে অপেক্ষায় ছিলেন কেকেআর সমর্থকরা, সেটাই তাঁরা দেখতে পেয়েছেন রাসেলের ব্যাটে। অন্যদিকে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স এখনও দল হিসেবেই জ্বলে উঠতে পারেনি।

আজকের ম্যাচে কয়েকটি ব্যাক্তিগত লড়াই ম্যাচের ভাগ্য তৈরি করে দিতে পারে। প্রথম লড়াইটা উমেশ যাদব বনাম ঈশান কিষানের। কলকাতা নাইট রাইডার্সের পেসার এ বারের টুর্নামেন্টে একেবারেই যেন অন্য মেজাজে। জোড়া ম্যাচে ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার জিতেছেন। অন্য দিকে মুম্বইয়ের হয়ে দুটি ম্যাচেই বড় ইনিংস এসেছে টুর্নামেন্টের সব থেকে দামি ক্রিকেটার ঈশানের ব্যাট থেকে। দ্বিতীয় লড়াইটা পোলার্ড বনাম নারিনের। দুই ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটারের লড়াইটা মুম্বই মিডল অর্ডারের মূল লড়াই। পোলার্ড এখনও ছন্দে নেই। নারিন উইকেট পাচ্ছেন। আজ যে বাজিমাত করবেন ম্যাচে দলকে অ্যাডভান্টেজ দিতে পারবেন। বুমরা বনাম রাসেল। নাইটদের লোয়ার অর্ডার সামলাতে যখন রাসেল আসবেন, তখন রোহিতের সব থেকে বড় ভরসা হয়ে উঠেত পারেন অভিজ্ঞ জসপ্রীত বুমরা। তিনি রাসেলকে চুপ রাখতে পারবেন, নাকি আবার একের পর এক ছয় আছড়ে পড়বে বাউন্ডারিতে। সেটাও ঠিক করে দিতে পারে ম্যাচের ভাগ্য।

মুম্বই সব সময় স্লো স্টার্ট করে। তাই প্রথম দুটি ম্যাচ হারলেও রোহিতের দলে বিরাট কোনও কাঁপুনি ধরেছে, এমনটা ভাবার কোনও কারণ নেই। বরং কলকাতার কাছে আজ হারলেও তাদের আত্মবিশ্বাসে চিড় ধরার সম্ভাবনা নেই। অন্য দিকে তিন ম্যাচে জোড়া জয় পাওয়া নাইট রাইডার্স নিজেদের ছন্দ ধরে রাখতে মরিয়া। আজ দুই দলের ৩০ তম ম্যাচ। আগের ২৯টি ম্যাচের মধ্যে ২২টি জিতেছে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। কলকাতার জয় মাত্র ৭টি ম্যাচে। কিন্তু আজকের ম্যাচে শ্রেয়স আইয়ারের কলকাতা ফেভারিট হয়ে মাঠে নামবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 − sixteen =