লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের টাকা জমিয়ে ফুটবল দল গঠন মহিলাদের

নিজস্ব প্রতিবেদন, নদিয়া: লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের অর্থ জমিয়ে নবদ্বীপের ঐতিহ্যবাহী ফুটবল টুর্নামেন্ট সকার কাপে দল গঠন করল নবদ্বীপের নিউ শিবশঙ্কর ক্লাব। আর লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের জমানো পয়সা দিয়েই মোহনবাগানে খেলে যাওয়া আর্থার কুরেসির মতো খেলোয়াড়কে নিয়ে এসেছে নিউ শিবশংকর ক্লাব। নিউ শিবশংকর ক্লাবের প্রতিটি খেলোয়াড়ের জার্সির পেছনে লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের লোগো, তার মাঝে লেখা মা-বোনেদের দান।
যেখানে তীর্থনগর নবদ্বীপে সাধারণ মানুষের ঘুম ভাঙে খোল কর্তালের আওয়াজে, সেই চৈতন্য ভূমিতেও মা-বোনেদের ফুটবল উন্মাদনা তাও আবার লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের জমানো অর্থে। এ এক অবাক দৃষ্টান্ত স্থাপন করল পশ্চিমবাংলার ক্রীড়া ক্ষেত্রে। এ বিষয়ে সকার কাপ টুর্নামেন্ট কমিটির কর্মকর্তা সুজিত সাহা বলেন, ‘নবদ্বীপ মিউনিসিপ্যালিটি পরিচালিত নবম বর্ষ সকার কাপে এমন উদ্যোগ এই প্রথম দেখা গেল। আমরাও টুর্নামেন্ট কমিটির পক্ষ থেকে অসংখ্য অভিনন্দন জানাচ্ছি ক্লাবের সকল মহিলা সমর্থকদের।’
শুক্রবার নবদ্বীপ বিবেকানন্দ স্টেডিয়ামে লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের জমানো অর্থে দল গঠন করে শিবশংকর ক্লাব নবদ্বীপ বিএসএফ ক্লাবকে ২-১ গোলে পরাজিত করে। এদিন দুই দলের খেলা দেখতে মাঠে হাজির ছিলেন নবদ্বীপের বিধায়ক পুণ্ডরীকাক্ষ সাহা ও নবদ্বীপ পুরসভার চেয়ারম্যান বিমানকৃষ্ণ সাহা সহ একাধিক কাউন্সিলররা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *